টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

“নগরীতে অনুমোদনবিহীন পরিবহন চলতে দেওয়া হবে না”

চট্টগ্রাম, ২০ জানুয়ারি ২০১৭ (সিটিজি টাইমস): চট্টগ্রামের সড়কে অনুমোদনবিহীন কোনো পরিবহন চলতে দেওয়া হবে না বলে হুঁশিয়ার করেছেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

আজ শুক্রবার নগরীর নিমতলা বিমান চত্বরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এ হুঁশিয়ার করেন। চয়েস মোটরস প্রাইভেট লিমিটেডের চট্টগ্রাম থেকে বারৈয়হাট হয়ে ছাগলনাইয়া পর্যন্ত নতুন বাস সার্ভিস উদ্বোধন উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

চসিক মেয়র বলেন, ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত মালামাল পরিবহনের কারনে নগরীর সড়কগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। অন্যদিকে বিআরটিএর অনুমোদন ছাড়া নামে-বেনামে অসংখ্য যানবাহন ও পরিবহন সড়কে চলাচল করে। এসব সমস্যা সমাধানের জন্য আগামী ২৯ জানুয়ারি সংশ্লিষ্ট ট্রাফিক আইন-শৃঙ্খলা প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছে। অনুমোদনবিহীন যেসব যানবাহন সড়কে চলাচল করে সেগুলোর বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি বলেন, এক শ্রেণীর অসাধু ব্যক্তি পরিবহনের উপর চাঁদা বাণিজ্য পরিচালনা করছে। যা আইনের পরিপন্থি। রেজিষ্ট্রার্ড ইউনিয়নের চাঁদা আদায়ের সুনির্দিষ্ট একটি হার রয়েছে। তার বাইরে চাঁদা আদায়ের কোনো এখতিয়ার কারও নেই। তা সত্বেও শ্রমিকনেতা নামধারী কতিপয় ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান চাঁদাবাজির মাধ্যমে শ্রমিক রাজনীতিকে কুলষিত করছে।

এসময় অনুষ্ঠানে সাবেক মন্ত্রী ও শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ডা. মোহাম্মদ আফসারুল আমীন এমপি বলেন, যান ও পরিবহন খাতে শৃংখলা না আসলে পরিবহনের নৈরাজ্য বন্ধ হবে না।

চট্টগ্রাম ১১ আসনের এমপি ও ৩ টি সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য এম এ লতিফ বলেন, মেয়রের নেতৃত্বে চট্টগ্রামে পরিবহন খাতে স্থায়ীভাবে নিয়ম-শৃংখলা প্রতিষ্ঠা করতে হবে। অনিয়ম, বিশৃংখলা ও চাঁদাবাজী এখানে চলতে পারে না। বে-আইনী সব ধরনের যান ও পরিবহন নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগ উপদেষ্টা শেখ মাহমুদ ইসহাক। বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগ যুগ্ম সম্পাদক আলহাজ্ব শফর আলী, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুল হক প্রমুখ।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত