টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বৃহত্তর চট্টগ্রামে ডাকা পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত

চট্টগ্রাম, ১৭ জানুয়ারি ২০১৭ (সিটিজি টাইমস): বৃহত্তর চট্টগ্রামে ডাকা ৪৮ ঘণ্টার পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন। আগামীকাল থেকে এই ধর্মঘট শুরু হওয়ার কথা ছিল।

মঙ্গলবার বিকালে চট্টগ্রাম নগর ট্রাফিকের অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (প্রশাসন ও অর্থ) মাসুদ-উল-হাসানের সাথে এক বৈঠকের পর এ ঘোষণা দেন ফেডারেশনের নেতারা।

এর আগে গত শনিবার বিকালে ট্রাক টার্মিনাল ও পুলিশি হয়রানি বন্ধসহ নয় দফা দাবিতে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, রাঙামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়ি রুটে ৪৮ ঘণ্টার পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দেন নেতারা।

ওই সময় ফেডারেশনের চট্টগ্রাম আঞ্চলিক শাখার সভাপতি মোহাম্মদ মুছা বলেন, নয় দফা দাবিতে গত বছরের ২৯ নভেম্বর বৃহত্তর চট্টগ্রামে পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিলেন তারা। সে সময় প্রশাসনের পক্ষ থেকে দাবি পূরণের আশ্বাস দিলে ধর্মঘট স্থগিত করা হয়। এখনও পর্যন্ত পরিবহন শ্রমিকদের দাবি মানার ক্ষেত্রে কোনো উদ্যোগ না দেখায় আবারও ধর্মঘট ডাকতে বাধ্য হয়েছেন তারা।

তবে আবারও অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মাসুদ-উল-হাসান বৈঠকে আগামী ২৯ জানুয়ারি দাবিগুলো সমাধানের বিষয়ে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র ও পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে শ্রমিক নেতাদের সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার আশ্বাস দেন। সেই আশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে ধর্মঘট স্থগিত ঘোষণা করা হয় বলে জানান মোহাম্মদ মুছা।

যোগাযোগ করা হলে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মাসুদ-উল-হাসানও সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, নয় দফা দাবির বিষয়ে মেয়রের সাথে আলোচনার নিশ্চয়তা দেয়ায় পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত করেন ফেডারেশনের নেতারা। এছাড়া নেতাদের সঙ্গে আরও অনেক ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে বলে জানান তিনি।

ফেডারেশনের দাবি গুলো হচ্ছে- বাস-ট্রাক-প্রাইম মুভার ও ট্রেইলারের জন্য টার্মিনাল নির্মাণ, অটোরিকশা ও অটোটেম্পোর জন্য পার্কিং স্পট, অনিবন্ধিত সিএনজি অটোরিকশার নিবন্ধন প্রদান ও মালিকের জমা ৬০০ টাকা নির্ধারণ, ভুয়া সংগঠনের নামে সন্ত্রাসী কায়দায় পরিবহন শ্রমিক সংগঠন দখলদারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ, বিআরটিএ ও যুগ্ম শ্রম পরিচালকের দপ্তরের দুর্নীতি-হয়রানি-অব্যবস্থাপনা বন্ধ, পরিবহন শ্রমিকদের নিয়োগপত্র দিয়ে কল্যাণ তহবিলের টাকা পাওয়া নিশ্চিতকরণ।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত