টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

সীতাকুণ্ডে ইউক্লিপটাস গাছ কাটা নিয়ে এলাকায় তোলপাড়

মোঃ ইমরান হোসেন
সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম, ১১  জানুয়ারি ২০১৭ (সিটিজি টাইমস)::  সীতাকুণ্ডে ইউক্লিপটাস গাছ কাটা নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরা গাছ কাটার জন্য মাইকিং করায় বাধ্য হয়ে গাছ কাটায় বিপাকে পড়েছে বাগান মালিকরা।

ইউক্লিপটাস গাছ কাটার সরকারীভাবে নির্দেশনা না থাকলে বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং করে গাছ কাটার নির্দেশ প্রদান করেছে ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে। এ নির্দেশের পর থেকে গাছ বিক্রি ও কাটার ব্যায় নিয়ে সংকটে পড়েছে সাধারণ মানুষ। এছাড়া এক সপ্তাহের মধ্যে গাছ কাটা না হলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের কথাও বলে জানাযায়।

এলাকাবাসী জানান, সরকার নিষেধাজ্ঞা প্রদান করায় ইউক্লিপটাস গাছ রোপন বন্ধ রয়েছে। কিন্তু হঠাৎ করে গাছ কেটে ফেলার নির্দেশ প্রদান করায় কেটে ফেলতে হচ্ছে ছোট-বড় সব গাছ। কিন্তু কার নির্দেশে চেয়াম্যানরা এ আদেশ দিয়েছেন তা কেউ জানেনা। এ পরিস্থিতিতে চেয়ারম্যানদের নির্দেশন প্রদান করায় ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে সাধারণ মানুষ।

অথচ আইনশৃংখলা কমিটিতে গাছ কাটার কোনো লিখিত সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়নি বলে জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুল ইসলাম ভ’ইয়া। তিনি বলেন,‘ আইনশৃংখলা কমিটিতে বিষয়টি উঠেছিল, তবে জোরপূর্বক গাছ কাটার নির্দেশ প্রদান করা কথা বলা হয়নি। কারণ সরকারী নির্দেশ না আসা পর্যন্ত গাছ কাটার ব্যাপারে কাউকে বাধ্য করা যাবে না বলে জানান তিনি।

এ দিকে চেয়ারম্যানদের মাইকিং করার কারণে গাছ কেটে ফেলে বনশূন্য করে ফেলা হচ্ছে প্রতিটি এলাকা। আর এসব কাটা গাছ নিয়ে যখন মানুষ সমস্যায় পড়েছে, তখনি ব্যবসায়ীরা সুযোগকে কাজে লাগিয়ে খুবই কম মূল্যে গাছ ক্রয় করে আঙুল ফুলে কলা গাছ হচ্ছে। অন্যদিকে লক্ষ টাকার গাছ হাজার টাকায় বিক্রি করে সর্বশান্ত হচ্ছে মানুষ। অন্যদিকে বিভিন্ন এলাকায় গাছ কাটার অভিযোগ পেয়ে রীতিমত বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছে বন বিভাগের কর্মকর্তারা।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম বন বিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা জগলুল আহাম্মেদ বলেন,‘ সরকারের পক্ষ হতে গাছ কাটার কোনো নির্দেশনা প্রদান করা হয়নি। এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহনে নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

মতামত