টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

হাটহাজারীতে বিশ্ব ইজতেমায় জুমার নামাজে অংশ নিতে লাখো মুসল্লি

আবু তালেব
হাটহাজারী থেকে

চট্টগ্রাম, ৩০ ডিসেম্বর, সিটিজি টাইমস:: হাটহাজারীতে চট্টগ্রাম জেলার আঞ্চলিক বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় দিনে জুমার নামাজে অংশ নিতে লাখো লাখো ধর্মপ্রাণ মুসল্লির ঢল নেমেছিল।

আজ শুক্রবার (৩০ ডিসেম্বর) ফজরের নামাজের পর থেকে দলে দলে মুসল্লিরা ইজতেমা মাঠে অবস্থান নিতে শুরু করে। মুসল্লিদের যাতায়াতের সুবিধার্থে বেলা ১১টা থেকে চট্টগ্রাম-নাজিরহাট মহাসড়কের দক্ষিণে হাটহাজারী বাসস্টেশন এবং উত্তরে চারিয়া মুসার দোকান এলাকায় সকল প্রকার যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। জুমার নামাজ শুরুর আগ পর্যন্ত নামাজে অংশ নিতে ইজতেমাস্থলে মুসল্লিদের ঢল নামে।

এ সময় স্বেচ্ছাসেবক এবং আইন-শৃংঙ্খলা বাহীনির সদস্যদের সীমাহীন বেগ পেতে হয়েছে। ১০ লক্ষাধিক মুসল্লির ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন ইজতেমাস্থলে প্যান্ডল নির্মিত হলেও স্থান সংকুলান না হওয়ায় মুসল্লিরা আশ্বেপাশে জমি ও রাস্তায় বিছানা ও জায়নামায নিয়ে নামায আদায়ের জন্য বসে পড়ে।

আজ জুমাবার ইজতেমায় জুমার নামায পড়ান ঢাকাস্থ কাকরাইল মসজিদের মুরব্বি মাওলানা হাফেজ জোবায়ের। নামাজে পানিসম্পদ মন্ত্রনালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রি ব্যরিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি, সাতকানিয়া-লোহাগাড়া আসনের সংসদ সদস্য ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নিজাম উদ্দিন নদভী, চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক সামশুল আরেফিন, চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, হাটহাজারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাহাবুবুল আলম চৌধুরী, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আরিফুল ইসলাম সরদার, হাটহাজারী থানার ওসি বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীরসহ জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা এবং জনপ্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

বেলা দেড়টায় জুমার নামাজের পূর্বে খোদবা শুরু হয়। দুইটায় জুমার নামাজ শুরু করা হয়। জুমার নামাজ শেষে ইজতেমায় আসা ১১ মাইল এলাকার এক মুসল্লি আবদুল মান্নান (৬০) এর যানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। তিনি গত বৃহস্পতিবার রাতে ইজতেমাস্থলে হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে ইন্তেকাল করেন। জুমার নামজ ও জানাজা শেষে হাজার হাজার মুসল্লিকে হাটহাজারী-নাজিরহাট মহাসড়ক দিয়ে পায়ে হেঁটে নিজ নিজ গন্তব্যে পৌছঁতে দেখা গেছে। ইজতেমায় আগত মুসল্লিদের চেয়ে মহাসড়কটি সংকুচিত হওয়ায় প্রয়োজনীয় যানবাহনের অভাবে বিকাল ৫টা পর্যন্ত সুমল্লিদের সড়ক পথে হেঁটে যেতে দেখা গেছে।

আজ শুক্রবার ফজরের নামাজের পর ঢাকাস্থ কাকরাইল মসজিদের মুরব্বি মাওলানা আবদুল বার এর আমবয়ানের মাধ্যম্যে ইজতেমার দ্বিতীয় দিনের কার্যক্রম অনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করা হয়। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত বিদেশী মেহমানদের সংখ্যা ১শ ৮ জন হলেও গতকাল শুক্রবার এ সংখ্যা ছাড়িয়ে ২শ এর কাছাকাছি পৌছেছে বলে ইজতেমার দায়িত্বশীল সূত্র গণমাধ্যমকর্মীদের নিশ্চিত করেছে। অন্তত ১৫টি রাষ্ট থেকে এ সব মেহমানরা এসেছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।আগ্মীকাল শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে ৩ দিন ব্যাপী আঞ্চলিক বিশ্ব ইজতেমার সমাপ্তি ঘটবে ।

মতামত