টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

প্রথম ওয়ানডেতে মাশরাফিদের ৭৭ রানের হার

চট্টগ্রাম, ২৬ ডিসেম্বর, সিটিজি টাইমস::নিউজিল্যান্ড সফরের শুরুর ম্যাচটিতে হেরে গেল বাংলাদেশ। সোমবার ক্রাইস্টচার্চে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে লড়াইও জমিয়ে তুলতে পারলো না টাইগাররা। ৩৪২ রানের বিশাল লক্ষ্যমাত্রা সামনে রেখে ব্যাট করতে নেমে ৭৭ রানে হারলো মাশরাফি-সাকিবরা। নেলসনের স্যাক্সটন ওভালে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৯ ডিসেম্বর।

কিউইদের দেয়া বড় টার্গেট সামনে রেখে ব্যাট করতে নেমে এদিন ৪৪.৫ ওভারে ২৬৪ রান করে অলআউট হয়ে যায় টাইগাররা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৯ রান করেন সাকিব আল হাসান। ৫০ রান করে অপরাজিত থাকেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ৪২ রান করে রিটায়ার্ড হার্ট হন মুশফিকুর রহিম। নিউজিল্যান্ডের পক্ষে জেমস নিশাম ৩টি, লকি ফার্গুসন ৩টি, টিম সাউদি ২টি ও মিচেল স্যান্টনার একটি করে উইকেট নেন।

এদিন ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে নামেন তামিম ইকবাল ও ইমরুল কায়েস। ওপেনিং জুটিতে দুইজন ৩৪ রানের পার্টনারশীপ গড়েন। ইনিংসের অষ্টম ওভারে টিম সাউদির বলে উইকেটরক্ষকের হাতে ধরা পড়েন ইমরুল কায়েস।

২১ বল খেলে তিনি করেন ১৬ রান। এর মধ্যে রয়েছে দুইটি চার ও একটি ছয়ের মার। ইমরুল কায়েস ফিরে যাওয়ার পর ব্যাট করতে নামেন সৌম্য সরকার। ইনিংসের ১২তম ওভারে দলীয় ৪৮ রানে জেমস নিশামের বলে কেন উইলিয়ামসনের হাতে ধরা পড়েন তিনি। আট বল খেলে সৌম্য করেন এক রান।

সৌম্য সরকার ফিরে গেলে তামিম ইকবালের সঙ্গে জুটি বাঁধেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। জেমস নিশামের ওই একই ওভারে উইকেটরক্ষকের হাতে ধরা পড়েন রিয়াদ। তিন বল খেলে তিনি করেন শূন্য রান।

এরপর তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান ৩৩ রানের পার্টনারশীপ গড়েন। ইনিংসের ১৮তম ওভারে দলীয় ৮১ রানে জেমস নিশামের বলে মিচেল স্যান্টনারের হাতে ধরা পড়েন তামিম ইকবাল।

এরপর সাকিব আল হাসানের সঙ্গে জুটি বাঁধেন মুশফিকুর রহিম। দু’জনে মিলে ৬৩ রানের পার্টনারশীপ গড়েন। ইনিংসের ২৮তম ওভারে লকি ফার্গুসনের বলে টিম সাউদির হাতে ক্যাচ হন সাকিব। ৫৪ বল খেলে তিনি করেন ৫৯ রান। এটি সাকিবের ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৩২তম হাফ সেঞ্চুরি।

সাকিব ফিরে যাওয়ার পর মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে জুটি বাঁধেন সাব্বির রহমান। দুইজনে মিলে গড়েন ২৩ রানের পার্টনারশীপ। ইনিংসের ৩১তম ওভারে লকি ফার্গুসনের বলে ট্রেন্ট বোল্টের হাতে ক্যাচ হন সাব্বির। ১১ বল খেলে তিনি করেন ১৬ রান।

এরপর মুশফিকুর রহিম ও মোসাদ্দেক হোসেন ভালোই খেলছিলেন। কিন্তু রান নিতে গিয়ে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন মুশফিক। ফলে, মোসাদ্দেক হোসেনের সঙ্গে জুটি বাঁধেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

ইনিংসের ৪২তম ওভারে মিচেল স্যান্টনারের বলে নেইল ব্রুমের হাতে ধরা পড়েন মাশরাফি বিন মুর্তজা। ৪৪তম ওভারে লকি ফার্গুসনের বলে উইকেটরক্ষকের হাতে ধরা পড়েন তাসকিন আহমেদ। আর ৪৫তম ওভারে টিম সাউদির বলে বোল্ড হন মোস্তাফিজুর রহমান। শেষে মুশফিকুর রহিম আর ব্যাট করতে নামতে পারেননি।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে সাত উইকেট হারিয়ে ৩৪১ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড। দলের পক্ষে টম লাথাম সেঞ্চুরি করেন। তিনি করেন ১৩৭ রান। আর কলিন মুনরো করেন ৮৭ রান। বাংলাদেশের পক্ষে সাকিব আল হাসান ৩টি, মোস্তাফিজুর রহমান ২টি ও তাসকিন আহমেদ ২টি করে উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

নিউজিল্যান্ড ইনিংস: ৩৪১/৭ (৫০ ওভার)

(মার্টিন গাপটিল ১৫, টম লাথাম ১৩৭, কেন উইলিয়ামসন ৩১, নেইল ব্রুম ২২, জেমস নিশাম ১২, কলিন মুনরো ৮৭, লুকে রঞ্চি ৫, মিচেল স্যান্টনার ৮*, টিম সাউদি ৭*)

(সাকিব আল হাসান ৩/৬৯, মোস্তাফিজুর রহমান ২/৬২, তাসকিন আহমেদ ২/৭০)

বাংলাদেশ ইনিংস: ২৬৪ (৪৪.৫ ওভার)

(তামিম ইকবাল ৩৮, ইমরুল কায়েস ১৬, সৌম্য সরকার ১, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ০, সাকিব আল হাসান ৫৯, মুশফিকুর রহিম ৪২, সাব্বির রহমান ১৬, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ৫০*, মাশরাফি বিন মুর্তজা ১৪, তাসকিন আহমেদ ২, মোস্তাফিজুর রহমান ০)

(জেমস নিশাম ৩/৩৬, টিম সাউদি ২/৬৩, লকি ফার্গুসন ৩/৫৪, মিচেল স্যান্টনার ১/৬১)

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত