টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বঙ্গভবনে সংলাপ শুরু আজ

চট্টগ্রাম, ১৮ডিসেম্বর  ২০১৬ (সিটিজি টাইমস):  নতুন নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনের বিষয়ে বিএনপির সঙ্গে সংলাপের মধ্যদিয়ে আজ শুরু হচ্ছে রাষ্ট্রপতির সংলাপ। বিকেল সাড়ে ৪টায় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের আমন্ত্রণে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে বিএনপির ১৩ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল যাবে বঙ্গভবনে।

বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, যে কমিশনের প্রতি সবদলের আস্থা থাকবে এমন নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য রাষ্ট্রপতির কাছে দলটির জোর দাবি থাকবে। মূলত খালেদা জিয়ার ১৩ দফাই থাকবে আলোচনার প্রধান বিষয়।

সূত্র জানায়, সংলাপে রাষ্ট্রপতি আগ্রহ দেখালে সার্চ কমিটির জন্য কয়েকজনের নামের তালিকাও বঙ্গভবনে জমা দেবে বিএনপি।

দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন জানান, সার্চ কমিটির জন্য রাষ্ট্রপতি নামের তালিকা চাইলে আজই নাম জমা দেবে বিএনপি।

এদিকে বঙ্গভবনের একটি সূত্র জানায়, বিএনপি নেতাদের অনুরোধে শেষ মুহূর্তে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আলোচনার জন্য প্রতিনিধিদলের সংখ্যা ১০ থেকে বাড়িয়ে ১৩ জন করা হয়েছে। সে জন্য গতকাল টেলিফোনে বিএনপিকে ১৩ জনের নাম পাঠাতে বলা হয়েছে। গতকালই বিএনপি ১৩ সদস্যের নামের তালিকা বঙ্গভবনে পাঠিয়েছে।

দলীয় সূত্র জানায়, রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আলোচনা শেষে বঙ্গভবন থেকে ফিরে দলের পক্ষ থেকে সাংবাদিকদের ব্রিফিং করা হবে।

এ বিষয়ে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আলোচনার সারবস্তু আমরা গণমাধ্যমকে জানাবো। তা কখন, কোথায় হবে এখনো ঠিক হয়নি।

উল্লেখ্য, নতুন ইসি গঠন নিয়ে রাষ্ট্রপতির আহ্বানে সাড়া দিয়ে বঙ্গভবনে যাচ্ছে বিএনপি। বড় রাজনৈতিক দল থেকে শুরু করে পর্যায়ক্রমে সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী সবদলকেই ডাকা হবে আলোচনার জন্য। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সংলাপের উদ্যোগে রাজনৈতিক আকাশে আশার আলো দেখছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা।

বিশেষ করে বিএনপি এ আলোচনাকে অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে। তারা মনে করছে, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন কেমন হবে তা নবগঠিত নির্বাচন কমিশন দেখে অনেকটা অনুধাবন করা যাবে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বর্তমান কমিশনের মেয়াদ আগামী ফেব্রুয়ারিতে শেষ হবে। এর আগেই নতুন কমিশন গঠনের বিধান রয়েছে। সংবিধানের ১১৮ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী দেশের রাষ্ট্রপতিকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অনধিক চারজন কমিশনার নিয়োগের বিষয়ে ক্ষমতা প্রদান করা হয়েছে।

২০১২ সালে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করেই ‘সার্চ কমিটির’ মাধ্যমে কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশন গঠন করেছিলেন তৎকালীন রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান।

মতামত