টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

যুদ্ধাপরাধী লালন-পালনকারীদেরও বিচার হবে: প্রধানমন্ত্রী

চট্টগ্রাম, ১৪  ডিসেম্বর  ২০১৬ (সিটিজি টাইমস):: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হয়েছে। আরও কিছু বিচার এখনো চলছে। আর যারা যুদ্ধাপরাধীদের লালন-পালন করেছে তাদেরও বিচার হবে।

১৪ই ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, যারা যুদ্ধাপরাধী হিসেবে সাজা পেয়েছে তাদের হাতেই উঠেছে দেশের পতাকা। যুদ্ধাপরাধীর যেমন বিচার হয়েছে তেমন তাদেরও বিচার হবে। যুদ্ধপরাধীদের যারা প্রশ্রয় দিয়েছে তাদেরও শাস্তি পেতে হবে।

জিয়াউর রহমান রাষ্ট্রপতি হয়ে সব যুদ্ধাপরাধীদের মুক্তি দেয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, রাজাকাররা তার মন্ত্রিসভার সদস্য হয়। সংবিধানের ৩৮ অনুচ্ছেদ আংশিক বাতিল করে দিয়ে যুদ্ধাপরাধীদের ভোটের অধিকার দেওয়া হলো।

“হানাদারবাহিনীর বিরুদ্ধে নাকি কোনো টু শব্দ করা যাবে না। আর এসব দোষ চাপানো হয় স্বাধীনতা যারা এনেছেন তাদের উপর। সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের মধ্যে দিয়ে যারা নিজের জীবন দিয়ে দেশ স্বাধীন করলো তারাই অপরাধী হয়ে গেলো। যে দেশ স্বাধীন করে তারা কি যুদ্ধাপরাধীদের সংসদে বসাতে পারে?”

এ সময় শেখ হাসিনা দলের নেতাকর্মীদের অবদান স্বীকার করে বলেন, আজ এই যে এখানে দাঁড়িয়ে কথা বলতে পারছি সেটা নেতাকর্মীদের অবদান। ওরা তো কখনো আমাকে ছেড়ে যায়নি। বরং বিপদে আপদে আমাকে ঘিরে ধরে রক্ষা করছে। সবাই বিকিয়ে যায় না। বিকিয়ে যেতে পারে না।

“আজ আমরা যতটুকু এগিয়ে এসেছি সেটা সবার প্রচেষ্টার ফল। এমন ধারনা ধারণ করে যেন আমরা এগিয়ে যেতে পারি।”

মতামত