টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

রামগড়ে বিজিবি’র হাতে পৌর কাউন্সিলর লাঞ্ছিত; প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ

করিম শাহ
রামগড় (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম, ১১ ডিসেম্বর  ২০১৬ (সিটিজি টাইমস): জেলার রামগড়ের তৈছালাপাড়ায় শনিবার (১০ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৮ টার সময় তুচ্চ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ৪৩ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন বিজিবি’র সদস্যদের হাতে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত হয়েছেন পৌরসভার ০৬ নং পৌর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ শামীম। প্রতিবাদে এলাকাবাসী তৈছালাপাড়ায় গাছ কেঁটে রাস্তায় ফেলে কয়েক ঘন্টা খাগড়াছড়ি-ফেনী সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরর্তীতে স্থানিয় রাজনৈতিক নেতাদের হস্তেক্ষেপে ৪৩ বিজিবি সদরে উর্দ্ধতন কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করলে উক্ত ঘটনায় তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহনে আস্বস্থ করলে স্থানিয়রা সড়ক অবরোধ রাতেই প্রত্যাহার করে নেয়।

রামগড় হাসপাতালে চিকাৎসাধীন কাউন্সিলর শামীম জানান, তাঁর ওয়ার্ডের বাসিন্ধা বিজিবি’র অব: হাবিলদার আকবর ও আনসার সদস্য মোস্তফার স্ত্রীর পারিবারিক বিরোধ বাঁধে। পরবর্তীতে বিরোধ মিমাংসার জন্য আকবরকে বললে সে উত্তেজিত হয়ে কয়েকজনকে নিয়ে তার উপর হামলা চালায়। তিনি আরো জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দু’পক্ষের সাথে কথা বলার সময় পাশ্ববর্তী ৪৩ বিজিবি’র সদর দপ্তর থেকে দুটি গাড়ী যোগে সুবেদার মোহছেন ও নায়েক আমিনুল এর নের্তৃত্বে ১৪/১৫ বিজিবি সদস্য তাঁর বেদক মারধর করে আহত করে শামীমকে ক্যাম্পে নিয়ে যান। রামগড় থানার অফিসার ইনচার্জ মাইন উদ্দিন শামীমকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে তাঁকেও লাঞ্ছিত করার চেষ্টা করেন বলে জানান।

বিজিবি সূত্রে জানা গেছে, জোন উপ-অধিনায়ক মেজর হুমায়ুন কবির আজ রবিবার দুপুরে আহত শামিমকে রামগড় হাসপাতালে দেখতে যান। তাঁর চিকিৎসার খোঁজ খবর নেন এবং উন্নত চিকিৎসার ব্যাপারে নির্দেশনা নিয়ে চিকিৎসার জন্য নগদ টাকা দেন। এসময় ঘটনায় জড়িত অপরাধীদের বিরুদ্ধে বিজিবি ব্যবস্থা গ্রহন করবে বলে তিনি জানান।

রামগড় থানা অফিসার ইনজার্জ মাইন উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জনান, অভিযোগ করা হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

মতামত