টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

নেতাদের ছিনিয়ে নিতে চট্টগ্রামে আস্তানা গেড়েছিল হুজি-বি’র জঙ্গিরা

চট্টগ্রাম, ০৮  ডিসেম্বর  ২০১৬ (সিটিজি টাইমস): চট্টগ্রাম নগরীর জঙ্গি আস্তানা থেকে আটক জঙ্গিরা বড় ধরনের নাশকতা এবং তাদের আটক শীর্ষদের কমান্ডো স্টাইলে ছিনিয়ে নিতেই এখানে আস্তানা গেড়েছিল বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের মিডিয়া অ্যান্ড লিগ্যাল উইংয়ের পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান।

বৃহস্পতিবার সকালে জঙ্গি আস্তানায় অভিযান শেষে প্রাথমিক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

সকালে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে চট্টগ্রাম মহানগরীর আকবরশাহ থানা এলাকার একটি দ্বিতল ভবনে অভিযান চালিয়ে তিন হরকাতুল জিহাদের(হুজি) জঙ্গিসহ পাঁচজনকে আটক করে র‌্যাব। এসময় সেখান থেকে ১২টি জাতীয় পরিচয়পত্র, দুটি পিস্তল ও বিভিন্ন বিস্ফোরক দ্রব্য, ৭টি ম্যাগজিন, গুলি, জিহাদি বই, সিডিসহ বিভিন্ন ধরনের বিস্ফোরক দ্রব্য উদ্ধার করা হয়েছে।

আটকরা হলো-তাজুল ইসলাম, নাজিম উদ্দিন, হাফেজ মো. আবু জর গিফারী, নুরে আলম ও ইফতিশাম আহমেদ।

মুফতি মাহমুদ খান বলেন, আটককৃতরা সবাই ইতিপূর্বে আটক হওয়া হরকাতুল জিহাদের(হুজি) আঞ্চলিক কমান্ডার মুফতি মাঈনুল ইসলামের ঘনিষ্ঠ। তারা বড় ধরনের নাশকতা এবং তাদের আটক শীর্ষ নেতাদের কমান্ডো স্টাইলে ছিনিয়ে নিতেই এখানে আস্তানা গেড়েছিল। এছাড়া আইন-শৃঙ্খখলা বাহিনীর স্থাপনায় হামলা করার পরিকল্পনা ছিল জঙ্গিদের। তাদেরকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের পরে বিস্তারিত তথ্য জানানো হবে।

র‌্যাব জানায়, বুধবার দিবাগত রাতে নগরীর এ কে খান এলাকা থেকে অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ তাজুল ইসলাম, নাজিম উদ্দিনকে আটকের পর তাদের দেয়া তথ্য মতে বৃহস্পতিবার ভোরে মুকিম তালুকদার পাড়ার মনসুর আহমদের দ্বিতল ভবনটিতে অভিযান চালায় চালানো হয়। ভোর রাত সাড়ে ৪টা থেকে সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত চলে এ অভিযান।

অভিযানের সময় জঙ্গিরা ভেতর থেকে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে এবং ভিতরে ল্যাপটপ ও বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক সরঞ্জাম ধংস করে দেয়। পরে ভবনের প্রধান গেইট ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে র‌্যাব। এসময় ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে যায় পুরো বাড়ি। এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয়দেরকে আতঙ্কিত না হতে এবং জঙ্গিদেরকে বের হয়ে আসতে হ্যান্ড মাইকে ঘোষণা দেয় র‌্যাব।

স্থানীয় নুরুল আলম মেম্বার জানান, আটককৃতরা গত কয়েকদিন আগে বাড়িটির একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়েছিল ৪ হাজার টাকায়। এর মধ্যে ১ হাজার টাকা অগ্রিম দেয় তারা। বুধবার তারা পরিবারের সদস্যদের সেখানে নিয়ে আসার কথা। কিন্তু রাতে কোনো মহিলা সদস্য না এসে দুজন পুরুষ বেশ কিছু মালামাল নিয়ে ওই বাড়িতে ওঠে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত