টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

শেষ চারে ঢাকা-চিটাগংয়ের সঙ্গী খুলনা-রাজশাহী

চট্টগ্রাম, ০৪  ডিসেম্বর  ২০১৬ (সিটিজি টাইমস)::  ক্রিকেট চরম অনিশ্চয়তার খেলাই বটে! বিপিএলের চতুর্থ আসরে প্রথম ছয় ম্যাচের পাঁচটিতে জিতে যেন উড়ছিল রংপুর রাইডার্স। দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের সুবাদে দলটির শেষ চার অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু নিয়তি ঠিক করে রেখেছিল অন্যটা। তাইতো গ্রুপ পর্বের শেষ ছয় ম্যাচের পাঁচটিতে হেরে বিদায় নেয় নাঈম ইসলাম-শহিদ আফ্রিদির দল। রোববার গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ঢাকা ডায়নামাইটসকে হারিয়ে চতুর্থ ও শেষ দল হিসেবে প্লে-অফে জায়গা করে নেয় খুলনা। অন্যদিকে ঢাকার হারে বিদায় নিশ্চিত হয় রংপুরের।

রোববার গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে খুলনার সামনে পরিষ্কার সমীকরণ ছিল। ঢাকাতে হারাতে পারলেই শেষ চার নিশ্চিত হবে দলটির। এমন ম্যাচে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও হাসানুজ্জামানের ব্যাটিংয়ের ওপর ভর করে ১২ বল বাকি থাকতেই ঢাকার ছুঁড়ে দেয়া ১৫৯ রানের লক্ষ্য পেরিয়ে যায় খুলনা। ফলে বিদায় নিশ্চিত হয় রংপুরের।

ঢাকার হারে কপাল পুড়েছে রংপুর রাইডার্সের। রোববার গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কাছে হেরে প্লে-অফের জন্য ঢাকার জয়ের প্রার্থনায় বসেছিল উত্তরবঙ্গের দলটি। তবে ঢাকাকে হারিয়ে রংপুরকে বিদায় করে দিয়ে প্লে-অফে জায়গা করে নেয় খুলনা।

প্রথম ছয় ম্যাচের পাঁচটিতে জিতেছিল রংপুর রাইডার্স। অন্যদিকে প্রথম পাঁচ ম্যাচের চারটিতেই হেরে গিয়েছিল রাজশাহী। গ্রুপ পর্বের ম্যাচ শেষে সেখানে বিদায় নিল রংপুরই। শেষ ছয় ম্যাচের পাঁচটিতে হেরে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নেয় আফ্রিদি-নাঈমের দল।

অন্যদিকে বাজে সময় পেছনে ফেলে টানা চার ম্যাচ জিতে শেষ চারের স্বপ্ন জাগিয়ে তোলে সাব্বিরের দল। যদিও টানা দুই ম্যাচ হেরে সেই স্বপ্নে ধাক্কা খায় রাজশাহী। কিন্তু শনিবার গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে চিটাগং ভাইকিংসকে হারিয়ে শেষ চারের স্বপ্ন টিকিয়ে রাখে রাজশাহী। রোববার কুমিল্লার কাছে রংপুর হেরে যাওয়ায় প্লে-অফ নিশ্চিত হয় দলটির।

শীর্ষ দল হিসেবেই সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইটস প্লে-অফ নিশ্চিত করেছে। ১২ ম্যাচের ৮টিতে জিতে সর্বোচ্চ ১৬ পয়েন্ট নিয়ে শেষ চারে পা রাখে সাকিবের দল। অন্যদিকে চিটাগং ভাইকিংস, রাজশাহী কিংস সমান ১২ পয়েন্ট নিয়ে প্লে-অফে জায়গা করে নেয়। ১৪ পয়েন্ট নিয়ে খুলনা উঠে এসেছে দুইয়ে। ঢাকা শীর্ষে এবং পরের তিনটি স্থানে রয়েছে যথাক্রমে খুলনা, চিটাগং ও রাজশাহী।

পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দুইয়ে থাকা দল দুটি ফাইনালে ওঠার ক্ষেত্রে দুটি সুযোগ পাবে। অন্যদিকে তৃতীয় ও চতুর্থ দলকে ফাইনালে যেতে হলে টানা দুটি ম্যাচ জিততে হবে। প্লে-অফের দুই দল প্রথম কোয়ালিফায়ারে মুখোমুখি হওয়ার পর বিজয়ী দল সরাসরি ফাইনালে চলে যাবে। অন্যদিকে হেরে যাওয়া দল ফাইনালে ওঠার লক্ষ্যে তৃতীয় ও চতুর্থ স্থান অর্জনকারী দলের মধ্যকার এলিমিনেটরে জয় পাওয়া দলের মুখোমুখি হবে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত