টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

শেষবারের মতো ক্যাস্ত্রোকে বিদায় জানাচ্ছে লাখো মানুষ

fileচট্টগ্রাম, ০৪ ডিসেম্বর  ২০১৬ (সিটিজি টাইমস):: কিউবার বিপ্লবী নেতা ফিদেল কাস্ত্রোকে তার জন্মভূমি সান্তিয়াগোতে শেষবারের মতো বিদায় জানাকে জড়ো হয়েছে কয়েক লাখ মানুষ। কিউবানরা ছাড়াও বিভিন্ন দেশের নেতারা এতে অংশ নিয়েছেন। পুরো অনুষ্ঠানের নেতৃত্ব দিচ্ছেন তার ভাই এবং কিউবার প্রেসিডেন্ট রাউল কাস্ত্রো। এই প্রক্রিয়া শেষে আজ সেখানেই তাকে সমাহিত করা হবে।

রাউল কাস্ত্রো জানিয়েছেন, ফিদেল কাস্ত্রোর ইচ্ছা অনুসারে তার নামে কোনও মন্যুমেন্ট বা সড়কের নামকরণ করা যাবে না। এ বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে। ফিদেল কাস্ত্রো সবসময় ব্যক্তিপূজার বিরুদ্ধে ছিলেন।

এর আগে ফিদেল কাস্ত্রোর দেহভস্ম তার জন্মস্থান সান্তিয়াগো শহরে পৌঁছায়। সমবেত বিপুল সংখ্যক মানুষ তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ‘ফিদেল চিরজীবী হোন’ শ্লোগান দিতে থাকে। হাভানা থেকে দেহভস্মবাহী গাড়ি যাত্রা করে চারদিন পর এটি ফিদেলের জন্মস্থানে পৌঁছায়।

সেখানে যোগ দিয়েছেন ভেনেজুয়েলা, নিকারাগুয়া, বলিভিয়ার নেতৃবৃন্দ এবং আর্জেন্টিনার ফুটবল তারকা দিয়েগো মারাদোনা। এর আগে হাভানা থেকে রওনা হয়ে চারদিনের যাত্রায় পথে পথে মানুষের শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় সান্তিয়াগোতে পৌছায় ফিদেল কাস্ত্রোর দেহভস্ম।

ফিদেলের ভক্ত কিউবার নাগরিক তানিয়া মারিয়া জিমনেজ বিবিসিকে বলেন, ‘আমরা যারা ফিদেলকে ভালোবাসি তাদের সকলের কাছে তিনি বাবার মতো। কারণ এই জাতিকে তিনি সঠিক পথ দেখিয়েছেন। আমরা তাকে অনুসরণ করতে পারি।’

গত ২৫শে নভেম্বর নব্বই বছর বয়সে কিউবার বিপ্লবী এই নেতার জীবনাবসান ঘটে। ফিদেতল ক্যাস্ত্রোকে কিউবার ইফিজিনিয়া সমাধিস্থলে চির নিদ্রায় শায়িত করা হবে। সেখানেই সমাধিস্থ করা হয়েছে কিউবার স্বাধীনতার নায়ক জোসে মার্টিনকেও।

মতামত