টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

আজ বিশ্ব এইডস দিবস

wadচট্টগ্রাম, ০১ ডিসেম্বর  ২০১৬ (সিটিজি টাইমস)::  আজ বিশ্ব এইডস দিবস। সচেতনতা ও আধুনিক চিকিৎসা সুবিধার অভাবে দেশে প্রতি বছরই এইচআইভি সংক্রমণ এবং এইডসে মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে। এইডস-এ সবচেয়ে বেশি মারা গেছেন ২০১৫ সালে। ওই বছর মারা গেছেন ৯৫ জন, আর আক্রান্ত হয়েছেন ৪৬৯ জন। এইডস প্রতিরোধ কার্যক্রমের জড়িতরা বলছেন, ঝুঁকিপূর্ণ গোষ্ঠীর মধ্যে যৌনকর্মী, তৃতীয় লিঙ্গ আর মাদকসেবীদের গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে।

১৯৮৯ সালে প্রথম এইচআইভি সংক্রমিত ব্যক্তি সনাক্ত হবার পর গত বছর ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশে এই রোগে মারা গেছেন ৬৫৮ জন। সংক্রমিত হয়েছেন ৪ হাজারেরও বেশি। বর্তমানে বিভিন্ন পেশার প্রায় আড়াই লাখ মানুষ এইডস সংক্রমণের ঝুঁকিতে আছে। সরকারের এসব তথ্য-উপাত্ত বলছে, প্রতিবছরই বাড়ছে সংক্রমিতের সংখ্যা।

চিকিৎসা সহায়তার পাশাপাশি তাদের প্রতি সদয় আচরণের প্রত্যাশা করেন আক্রান্তরা।

সরকারের পাশপাশি আশার আলো সোসাইটি, মুক্ত আকাশ বাংলাদেশ কনফিডেনশিয়াল অ্যাপ্রোচ টু এইডস প্রিভেনশনেরসহ বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা এইডস আক্রান্তদের চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছে। তবে কার্যক্রম চালাতে আর্থিক সংকটের কথা বলছেন তারা। চিকিৎসকদের আশঙ্কা, এইচআইভি সংক্রমণ রোধে এখনই সচেতন না হলে বাংলাদেশেও রোগটি মহামারি রূপ নিতে পারে।
পরিসংখ্যান বলছে, বিশ্বে প্রতিদিন ৫ হাজার ৭শ জন আক্রান্ত হচ্ছেন এইডসে, যাদের বয়স ১৫ থেকে ২৪ বছরের মধ্যে। সে অনুযায়ী বাংলাদেশের মোট জনগোষ্ঠীর একটি বড় অংশই এইচআইভি-এইডস সংক্রমণের ঝুঁকিতে আছে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত