টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

‘ইমো-হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞার পরিকল্পনা নেই’

itচট্টগ্রাম, ২৭ নভেম্বর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস):: ভাইবার, ইমো, হোয়াটসঅ্যাপ ইত্যাদি অ্যাপসের মাধ্যমে ভয়েস কলে বিধি-নিষেধ আরোপের কোনো পরিকল্পনা নেই সরকারের।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিমের বরাত দিয়ে আজ রোববার বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

দেশের কয়েকটি গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওটিটি অ্যাপস নিয়ন্ত্রণের চিন্তা করছে বিটিআরসি। এই ধরনের তথ্য উপস্থাপনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রতিমন্ত্রী বলেন, অবৈধ ভিওআইপি ব্যবসা বন্ধে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ সরকার। তবে যে সব অ্যাপসের মাধ্যমে ফ্রি কল করা যায় সে ধরনের কোনো অ্যাপসে বিধি নিষেধ আরোপের কোনো পরিকল্পনা সরকারের নেই।

ভিওআইপির মাধ্যমে অবৈধ কল বন্ধে মন্ত্রণালয়ের নিরলস প্রচেষ্টার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, অবৈধ কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে আমাদের ‘জিরো টলারেন্স’ অব্যাহত থাকবে।

গত শুক্রবার বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান বলেছেন, শুধু ভিওআইপির অবৈধ কলের কারণেই নয়; ওটিটি (ওভার-দি-টপ) অ্যাপসের ব্যবহারের কারণেও বৈধ চ্যানেলে আন্তর্জাতিক কল কমছে। তাই ফ্রি কলিংয়ের জন্য ব্যবহৃত যোগাযোগ অ্যাপস ব্যবহারের গাইডলাইন তৈরি করা হবে।

তবে কিছু গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, কমিউনিকেশন অ্যাপস-ভাইবার, ইমো, হোয়াটসঅ্যাপ ফের বন্ধ হতে যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, বর্তমানে দেশে দৈনিক ৭০-৮০ মিলিয়ন মিনিট আন্তর্জাতিক কল আসছে বলে জানিয়েছে বিটিআরসি। ২০১৪ সালের শেষ দিকে আন্তর্জাতিক কল রেট কমে যাওয়ায় সে সময়ে আন্তর্জাতিক কলের পরিমাণ অনেক বেড়েছিল।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত