টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

রামগড়ে বেইলী ব্রীজ ভেঙ্গে ট্রাক খালে: যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

করিম শাহ
রামগড় (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি

ramgarhচট্টগ্রাম, ২২  নভেম্বর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস):: খাগড়াছড়ির রামগড় পৌরসভার কালাডেবা বাজারের পাশে ১৯৯০ সালের তৈরী বেইলী ব্রীজটি ট্রাকের চাপে সম্পূর্ণ ভেঙ্গে গেছে । সোমবার (২২ নভেম্বর) গভীর রাতে ট্রাকটি (ঢাকা মেট্রো-ট ২০-১৬৪৭) রামগড় ইউনিয়নের লামকুপাড়া থেকে কালাডেবা এলাকায় আসার পথে কালাডেবা বেইলী ব্রীজের উপর উঠা মাত্রই অতিরিক্ত চোরাই গাছ বোঝাই ট্রাকটি সম্পূর্ণ ভেঙ্গে নিচে পড়ে যায় এমন অভিযোগ স্থানিয়দের। এতে বন্ধ হয়ে যায় রামগড় সদর ও সদর ইউনিয়নের যোগাযোগ ব্যবস্থা। ফলে দূর্ভোগে পড়েছে ঐ এলাকার হাজার হাজার জনসাধারণ। এদিকে অতিরিক্ত চোরাই কাঠ বোঝাইয়ের কারণে ব্রীজটি ভেঙ্গে গেছে এমন খবর জানাজানি হলে ট্রাক মালিক কালাম ও ড্রাইভার বেলাল হোসেন ঘটনাস্থল থেকে সটকে পড়েন।

স্থানিয় প্রত্যক্ষদর্শীদের অভিযোগ, অতিরিক্ত কাঠ বোঁঝাই ট্রাকটি রাত ২ টার দিকে ব্রীজ অতিক্রম করার সময় বিকট শব্দে ভেঙ্গে ট্রাকসহ নিচে পড়ে যায়। তাৎক্ষণিক ট্রাক্টর দিয়ে ভোর হওয়ার আগেই কাঠগুলো অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়। প্রদক্ষদর্শীরা আরো জানান, অবৈধ কাঠ, বাঁশ পাচারে জন্য সড়কটি নিরাপদ হওয়ায় প্রায় প্রতিদিন রাতের আধাঁরে ঝুঁকিপূর্ণ ব্রীজটি দিয়ে একটি সংর্ঘবদ্ধ গাছ পাচারকারী সিন্ডিকেট অতিরিক্ত কাঠ, বাঁশসহ বিভিন্ন মালামাল ট্রাকে করে পাচার করে থাকে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রভাবশালী একটি গাছ পাচার সিন্ডিকেট দীর্ঘদিন যাবত সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে ম্যানেজ করে উক্ত ঝুঁকিপূর্ণ সড়ক ও ব্রীজ দিয়ে খাগড়াবিল হাতির খেদা, বালুখালী হয়ে ফটিকছড়ির দাঁতমারা ও গভীর রাতে সোনাইপুল দিয়ে অবৈধ গাছ ও বাঁশ পাচার করে আসছে। গাছ পাচারকে কেন্দ্র করে কালাডেবা, লামকুপাড়া, সোনাইপুল ও খাগড়াবিল সড়কে রাতারাতি গড়ে উঠেছে অসংখ্য অবৈধ করাত কল। ফলে উজাড় হচ্ছে বন, বিপন্ন হচ্ছে মানবতা আর সরকার হারাচ্ছে বিপুল পরিমান রাজস্ব।

রামগড় এলজিইডি অতিরিক্ত পরিচালক আনোয়ার হোসেন পরিদর্শন শেষে জানান, উর্ধত্বন কর্তৃপক্ষের নিকট নতুন ব্রীজ ও অস্থায়ীভাবে জরুরী ভিক্তিতে জনসাধারণের চলাচলের ব্যবস্থা নেয়ার প্রয়োজনীয়তার কথা জানানো হয়েছে।

 

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত