টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে ৩ তরুণী উদ্ধার, পাচারকারী গ্রেফতার

চট্টগ্রাম, ২১  নভেম্বর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস): চট্টগ্রাম মহানগরীর বন্দর থানার এলাকা থেকে চাকুরীসহ বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে পতিতাবৃত্তিতে জড়িত করার অভিযোগে মাসুদ পারভেজ (৩০) নামের এক নারী পাচারকারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এসময় তিন তরুণীকে উদ্ধার করে র‌্যাব। গ্রেফতারকৃত মাসুদ পারভেজ বাগেরহাট জেলার মোড়লগঞ্জ থানার শনির জোর এলাকার আব্দুল আজিজ হাওলাদারের ছেলে। সে সল্ট গোলা ক্রসিং এলাকায় থাকেন।

রবিবার বিকেল এসাকের ডিপোর রেলওয়ের সরকারী জায়গায় তৈরী করা টিনের ঘরের ভিতর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) সোহেল মাহমুদ।

র‌্যাব সূত্রে জান যায়, গত ১৮ নভেম্বর জনৈক মোঃ আনিসুর রহমান র‌্যাব-৭ এ অভিযোগ দায়ের করেন যে, তার ভাগিনী সুমনা আক্তার (১৮) গত ১৩ নভেম্বর চাকুরীর খোঁজে চট্টগ্রামে আসে। পরবর্তীতে চট্টগ্রামের ইপিজেডস্থ একটি ফ্যাক্টরীতে চাকরীর জন্য যায়, সেখানে একজন লোক চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে পতিতালয়ে বিক্রি করে দেয়।

গত ১৭ নভেম্বর একটি অপরিচিত নম্বর থেকে তার ভাগিনী ফোন করে জানায়, তাকে কতিপয় লোক চাকুরী দেয়ার কথা বলে জোর পূর্বক একটি ঘরে আটকিয়ে রেখে দেহ ব্যবসা করাচ্ছে। উক্ত অভিযোগের প্রেক্ষাপটে র‌্যাব-৭ চট্টগ্রামের ইপিজেড এলাকায় একটি ভয়ংকর নারী পাচারকারী ও পতিতাবৃত্তি চক্রের সন্ধান পয়।

সোহেল মাহমুদ জানান, শহরে আসা নারীদের এবং গরিব মেয়েদের চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে বিক্রি করে দেয় এবং পরবর্তীতে এই সব মেয়েদের জোর পূর্বক কিছু নগ্ন ছবি তুলে তাদেরকে দেহ ব্যবসায় বাধ্য করে পাচারকারীরা। গ্রেফতারকৃত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তার সহযোগীরা মিলে বিভিন্ন জায়গা থেকে মেয়েদেরকে চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে বিক্রি করে দেয়।

এদিকে উদ্ধারকৃত ভিকটিম এবং গ্রেফতারকৃত আসামীকে নগরীর বন্দর থানায় হস্তান্তরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন আছে বলেও জানান তিনি।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত