টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

মেসি জাদুতে কলম্বিয়াকে হারাল আর্জেন্টিনা

চট্টগ্রাম, ১৬ নভেম্বর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস):  বিশ্বকাপ বাছাইয়ে টানা চার ম্যাচ জয়হীন। বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলা নিয়েই শঙ্কা। আরেকটি হোঁচট রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন মলিন থেকে মলিনতর করে দেবে- এটা জেনেই মাঠে নেমেছিল আর্জেন্টিনা; প্রতিপক্ষ কলম্বিয়া। ঘরের মাঠে দুর্দান্ত নৈপুণ্যে কলম্বিয়াকে হারিয়ে গুরুত্বপূর্ণ জয় তুলে নিলো আকাশী-নীল শিবির। বাংলাদেশ সময় বুধবার সকালে লিওনেল মেসির দ্যুতিতে প্রতিপক্ষকে ৩-০ গোলে পরাজিত করে ছন্দে ফিরেছে এডগার্ডো বাউজার দল।

বিশ্বকাপ বাছাইয়ের আগের চার ম্যাচে দুটি করে হার ও ড্র নিয়ে মাঠ ছেড়েছিল আর্জেন্টিনা। অবশেষে দারুণ জয় দিয়ে ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন জাগিয়ে তুললো মেসির দল।

আর্জেন্টিনার দারুণ জয়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেন মেসি। একটি গোল করার পাশাপাশি একটি গোলে নেতৃত্ব দেন কিং লিও। অপর দুটি গোল করেন লুকাস ডেভিড প্রাত্তো ও ডি মারিয়া।

ঘরের মাঠ সান হুয়ানে জয়ের জন্য মরিয়া হয়েই মাঠে নেমেছিল আর্জেন্টিনা। শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলা থাকা দলটি খেলার দশম মিনিটেই মেসির বিস্ময়কর গোলে এগিয়ে যায়। ২৫ গজ দূর থেকে মেসির নেয়া ফ্রি-কিক পোস্টের নিচের অংশে লেগে জালে আশ্রয় নিলে অসহায় গোলরক্ষকের যেন কিছুই করা ছিল না। শুরুতেই দর্শনীয় এক গোল করে দর্শকদের মোহিত করে ফেলেন আর্জেন্টিনার নাম্বার টেন।

শুরুতেই গোল পাওয়ায় আত্মবিশ্বাস অনেকটাই বেড়ে যায় আর্জেন্টিনার। ২৩তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ফেলে স্বাগতিকরা। মেসির মাপা ক্রস থেকে ভেসে আসা বলে দারুণ হেডে লক্ষ্যভেদ করে গঞ্জালো হিগুয়েনের পরিবর্তে প্রথম একাদশে ঢুকা প্রাত্তো।

আর্জেন্টিনার দারুণ ফুটবলের পাশাপাশি দুই দল যেন শারীরিক ফুটবলেও মনোযোগী হয়ে ওঠে। ২৮ থেকে ৩৩- ৫ মিনিটের ব্যবধানে আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়ার দুজন করে চারজন খেলোয়াড় হলুদ কার্ড দেখেন। কলম্বিয়ার হয়ে সান্তিয়াগো আরিয়াস ও রিয়াল মাদ্রিদ তারকা হামেস রদ্রিগেজ হলুদ কার্ড দেখেন। আকাশী-নীলদের হয়ে প্রাত্তো ও গ্যাব্রিয়েল মার্কেডোকে হলুদ কার্ড দেখানো হয়।

প্রথমার্ধে এরপর আক্রমণাত্মক খেললেও গোলের দেখা পায়নি আর্জেন্টিনা। অন্যদিকে প্রতি-আক্রমণে ভীতি সৃষ্টি করা কলম্বিয়াও সাফল্যের মুখ দেখেনি। ফলে ২-০ ব্যবধানের লিড নিয়ে মাঠ ছাড়ে মেসির দল।

বিরতির পরও আক্রমণাত্মক খেলার ধার কমায়নি আর্জেন্টিনা। আক্রমণের পাশাপাশি নিজেদের ঘর সামাল দেয়ারও চেষ্টা করে স্বাগতিকরা। একের পর এক আক্রমণ করেও সাফল্যের দেখা পাচ্ছিল না আকাশী-নীলরা। ৬৮তম মিনিটে অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়ার দারুণ এক প্রচেষ্টা অল্পের জন্য নচ্যাৎ হয়।

তবে নির্ধারিত সময়ের খেলা শেষ হওয়ার ছয় মিনিট আগে ম্যাচে ফের প্রাণ ফিরিয়ে আনেন মেসি ও ডি মারিয়া। বক্সের ভেতরে ফাঁকায় থাকা ডি মারিয়াকে বুদ্ধিদীপ্ত পাস বাড়ান মেসি। সেই পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ফাঁকা পোস্টে বল জড়াতে কোনো ভুল করেননি পিএসজির অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার। এরপর আর কোনো গোল না হওয়ায় ৩-০ ব্যবধানের স্বস্তির জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আর্জেন্টিনা।

এই জয়ের ফলে ১২ রাউন্ড শেষে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে এক ধাপ এগিয়ে পাঁচ নম্বরে ওঠে এসেছে আর্জেন্টিনা। কলম্বিয়া ১৮ পয়েন্ট নিয়ে ছয়ে নেমে গেছে। দিনের অপর ম্যাচে ভেনেজুয়েলাকে ৩-০ গোলে হারিয়ে ২০ পয়েন্ট নিয়ে তিনে ওঠে এসেছে ইকুয়েডর। অন্যদিকে উরুগুয়েকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ২০ পয়েন্ট নিয়ে চারে রয়েছে চিলি। সর্বোচ্চ ২৪ পয়েন্ট নিয়ে ব্রাজিল (এক ম্যাচ কম খেলে) শীর্ষে ও ২৩ পয়েন্ট নিয়ে উরুগুয়ে রয়েছে দুইয়ে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত