টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

সৌদিতে সড়ক দূর্ঘটনায় প্রান হারালো সাতকানিয়ার করিম

ছোট মেয়েটির বিয়ে দেওয়া হলোনা তার

শহীদ ইসলাম বাবর
বিশেষ প্রতিনিধি

satkania-ctgচট্টগ্রাম, ১২ নভেম্বর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস): ছোট মেয়ে রেহেনা আক্তারকে বিয়ে দেওয়ার ইচ্ছে পোষন করতেন দক্ষিণ চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার মার্দাসা ইউনিয়নের ফজল করিম। কিন্তু সৌদি আরবে এক মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় আশা পূরণ হলোনা তার। গত বৃহস্পতিবার সৌদি সময় বিকাল চারটার সময় সৌদি আরবের মদিনা শহরে গাড়ি চালিয়ে বাসা থেকে খালেকা যাওয়ার পথে মদিনা শহর থেকে অন্তত ৭০ কিলোমিটার দুরে ওয়ারেদীন নামক স্থানে এক সড়ক দূর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই প্রান হারান তিনি। তার নিকটাত্মীয় শাহাদাত হোসেন সড়ক দূর্ঘটনায় ফজল করিম নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ফজল করিম সাতকানিয়া উপজেলার মার্দাসা ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামের আব্দুল হাকিমের পুত্র। ফজল করিম গত ১০/১২ বৎসর থেকে সৌদি আরবে অবস্থান করছেন। এবং সর্বশেষ গত দড় বছর আগে সে দেশে এসে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে কোরবানীর ঈদ উদযাপন করেছেন।

জানা যায়, ফজল করিমের ২ ছেলে ও চার কন্যা সন্তানের জনক। মেয়েদের মধ্যে তিন মেয়ের বিয়ে দেওয়া হয়েছে। বাকি ছিল ছোট মেয়ে রেহেনা আক্তার। নিহত ফজল করিমের স্ত্রী রশিদা বেগম জানান, দূর্ঘটনা সংগঠিত হওয়ার একদিন আতে তার সাথে সে ফোনে (ফজল করিম) কথা বলেছিল। সেই সময় পরিবারের সদস্যদের বিষয়ে খোজঁ খবর নিয়ে সর্বশেষ রেহেনার বিয়ের বিষয়ে কথা বলেন। ভাল ছেলে পেলে রেহেনাকে পাত্রস্থ করবেন বলে তার মত দেন। এদিকে সড়ক দূর্ঘটনায় ফজল করিমের মৃত্যুর সংবাদ শুনে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন পরিবারের সদস্যরা। দুর-দুরান্ত থেকেও নিকটাত্মীয়রা ফজল করিমের ঘরে এসে পরিবারের সদস্যদের শান্তনা দেওয়ার চেষ্টা করলেও যেন কোন শান্তনায় তাদের শান্ত করতে পারছেনা। স্বজনদের কান্নায় ভারি হয়ে উঠেছে। জয় নগরের পরিবেশ। স্থানীয় এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, ফজল করিম অন্তত ১২ বছর আগে নিজের ভাগ্য পরিবর্তনের আশায় পাড়ি জমান সৌদি আরবে সেখানে তিনি ইউনিট গাড়িতে করে মালামাল পরিবহণ করতেন। তার বড় ছেলে শাহ আলমও সৌদি প্রবাসী। তিনি গত দুই মাস আগে ছুটিতে দেশে এসেছেন। তিনি জানান, দূর্ঘটনার পর তার বাবার মরদেহ স্থানীয় মিকাত হসপিটালের হিমঘরে রাখা হয়েছে। এখন দেশ থেকে প্রয়োজনীয় কাগজ পাঠিয়ে সেখানে দাফনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত