টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

রাঙ্গুনিয়ায় জেএসসি পরীক্ষার্থী ধর্ষিত: অপমানে আত্মহত্যার চেষ্টা

আব্বাস হোসাইন আফতাব
রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম, ০৮ নভেম্বর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস): রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বেতাগী ইউনিয়নের তিন সৌদিয়া পূর্ব পাহাড় এলাকার এক জেএসসি পরীক্ষার্থী ধর্ষিত হওয়ার পর অপমানে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্ঠা করেছে। এই ঘটনায় সোমবার (৭ নভেম্বর) ধর্ষিতার বড় বোন রাশেদা আক্তার বাদী হয়ে একই ইউনিয়নের চেংখালী এলাকার আব্দুল মোনাফের পুত্র ধর্ষক আব্দুল মান্নান (২২) কে বিবাদী করে রাঙ্গুনিয়া থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। ধর্ষণের শিকার মেয়েটি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ধর্ষক আব্দুল মান্নান পলাতক রয়েছে।

অভিযোগে জানা যায়, বৃহস্পতিবার (৩ নভেম্বর) ধর্ষিতা মেয়েটির দিনমজুর বাবা শারীরিক অসুস্থ হয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন থাকায় তার মা ও বড় বোন হাসপাতালে বাবার সাথে যায়। একই দিন বিকালে মেয়েটি জেএসসি পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি এসে তাদের গৃহপালিত গরুটি আনতে বাড়ির দক্ষিণ পাশের জনৈক সুরত আলমের পাহাড়ে যায়। মেয়েটিকে পাহাড়ের নির্জন এলাকায় পেয়ে ধর্ষক আব্দুল মান্নান সুযোগ বুঝে তার উপর ঝাপিয়ে পড়ে তাকে মুখ চেপে ধরে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। এদিকে মেয়েটির মা হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরে তাকে না পেয়ে বাড়ির আশেপাশে খোঁজ করতে করতে পাহাড়টিতে গিয়ে দেখে মেয়েটি মুমুর্ষ অবস্থায় পড়ে রয়েছে। মেয়েটির মায়ের আর্তচিৎকারে পাশের লোকজন ঘটনাস্থলে এসে তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যায়। বাড়িতে আনার পর মেয়েটি সকলের অগোচরে বিষপান করে। পরে তার পরিবার তাকে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মেয়েটি আশংকা মুক্ত রয়েছে।

ধর্ষিতার বড় বোন রাশেদা আক্তার জানান, ধর্ষক মান্নানের পরিবার বিভিন্ন ভাবে আমার বোনকে উদ্দেশ্য করে নানা ধরণের কথা বার্তা বলে আমাদের বিরক্ত করছে। আমার বোন ছোট এবং একজন জেএসসি পরীক্ষার্থী। তিনি তার বোনের ধর্ষককে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

রাঙ্গুনিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ হুমায়ুন কবির জানান, ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। ঘটনার দায়ে অভিযুক্ত আব্দুল মান্নানকে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে বলে তিনি জানান।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত