টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

সীতাকুণ্ড থেকে কুমিল্লা মহাসড়কে সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের হাতে জিম্মি যাত্রীরা

চট্টগ্রাম, ০৫ নভেম্বর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস)::  কুমিল্লা থেকে সীতাকুণ্ড পর্যন্ত প্রায় দেড়শ কিলোমিটার এলাকায় সংঘবদ্ধ ৪টি ডাকাত দলের হাতে জিম্মি হয়ে পড়েছে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের হাজার হাজার যাত্রী। ডাকাতদলগুলোতে রয়েছে দেশি-বিদেশি অস্ত্রে সজ্জিত ১৫ থেকে ২০ জন সদস্য।

এমন তথ্য খোদ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর। প্রতিদিনই নানা কৌশলে প্রাইভেট কার, মাইক্রোবাস ও অন্যান্য যাত্রীবাহী গাড়ি নামিয়ে মালামাল লুট করেছে ডাকাত দলের সদস্যরা। এ অবস্থায় যাত্রীদের পাশাপাশি পরিবহন মালিকরাও আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন।

মহাসড়কের ডাকাত দলের সদস্যদের ধরার জন্য সম্প্রতি মধ্যরাতে ফাঁদ পেতেছিলও র‌্যাব। আর সাধারণ গাড়ি মনে করেই সে গাড়িতে হামলা চালায় ডাকাত দলের সদস্যরা। হয়তো পূর্ব প্রস্তুতি ছিলো বলে র‌্যাব সে ডাকাত দলকে প্রতিরোধ করতে পেরেছিলও। র‌্যাবের দাবি অনুযায়ী, বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে তিনজন। কিন্তু কোনো রকম বাধা ছাড়াই ডাকাত দলের কবলে পড়ছে মহাসড়কে চলাচলকারী অন্যান্য যানবাহন।

র‌্যাবের তথ্য অনুযায়ী, দেশের গুরুত্বপূর্ণ এ মহাসড়কে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে আছে সংঘবদ্ধ চারটি ডাকাত দল। এর মধ্যে কুমিল্লা থেকে ফেনী পর্যন্ত একটি গ্রুপের রাজত্ব থাকলেও ফেনী থেকে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড পর্যন্ত রয়েছে বাকি তিনটি গ্রুপ।

এ অঞ্চলে যানবাহনে ডাকাতির ঘটনা ঘটলেও আইনগত সহায়তা নেয়ার হার সে তুলনায় একেবারে কম।

প্রতিদিন অন্তত দুই হাজার যাত্রীবাহী বাস, আট হাজারের বেশি প্রাইভেট কার, মাইক্রোবাস, চার হাজারের বেশি মিনি ট্রাক এবং হিউম্যান হলার চলাচল করে এ মহাসড়কে।

এছাড়া চট্টগ্রাম বন্দর কেন্দ্রিক টন্দ্র ও লরী রয়েছে ত্রিশ হাজারের বেশি।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত