টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে জোড়াখুনের ঘটনায় দুইজন গ্রেপ্তার

চট্টগ্রাম, ৩০  অক্টোবর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস): চট্টগ্রামে আড়াই বছর আগের জোড়া খুনে জড়িত দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছেন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) সদস্যরা। এরা হল, রমজান আলী প্রকাশ আকাশ প্রকাশ তুফান (২৫) এবং মো.আলাউদ্দিন (২১)।

নগরীর খুলশী থানার ষোলশহরে দুই যুবককে নৃশংসভাবে খুনের চাঞ্চল্যকর ওই মামলায় ৯ জনকে আসামি করে ২০১৪ সালের ১৮ ডিসেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দিয়েছিল খুলশী থানা পুলিশ।  তবে নাম-ঠিকানা না পাওয়ার অজুহাতে রমজান ও আলাউদ্দিনের নাম অভিযোগপত্রে অর্ন্তভুক্ত করেনি পুলিশ।

আদালতের নির্দেশে অধিকতর তদন্তে নেমে পিবিআই রোববার (৩০ অক্টোবর) ভোর সাড়ে ৩টার দিকে রমজান ও আলাউদ্দিনকে নগরীর বায়েজিদ বোস্তামি থানা এলাকা থেকে গ্রেফতার করে।

অভিযানে থাকা পিবিআই, চট্টগ্রামের পরিদর্শক সন্তোষ কুমার ‍চাকমা বলেন, হত্যাকান্ডের পর থানায় যে মামলা হয়েছিল তাতে রমজান ও আলাউদ্দিনসহ ৯ জনের নাম উল্লেখ ছিল।  খুলশী থানা পুলিশ তদন্ত করে হত্যাকান্ডের সঙ্গে ১২ জনের সম্পৃক্ততার তথ্য পায়।  এর মধ্যে ৯ জনের পূর্ণাঙ্গ নাম-ঠিকানা সংগ্রহে সক্ষম হয় পুলিশ।  তাদের নামে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়া হয়।

অভিযোগপত্রে নাম-ঠিকানার জন্য বাদ পড়া তিনজনের দুজন আলাউদ্দিন ও রমজান বলে জানান পরিদর্শক সন্তোষ।

২০১৪ সালের ১৭ মার্চ ষোলশহর দুই নম্বর গেইট এলাকায় একটি সেপটিক ট্যাঙ্কি থেকে ওমরগণি এমইএস কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র কামরুল হাসান ও পোশাক শ্রমিক ফোরকান উদ্দিনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় কলেজ ছাত্র কামরুলের বাবা আব্দুল হাকিম নয়জনের বিরুদ্ধে খুলশী থানায় মামলা করেন।

পুলিশ আসামিদের গ্রেপ্তারের পর সাহেদ, শাহ আলম, প্রত্যক্ষদর্শী হিসেবে শাহ আলমের কথিত স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস ও অপর এক তরুণী হত্যার বিষয়ে আদালতে জবানবন্দি দেন।

পিবিআই পরিদর্শক সন্তোষ জানান, তাদের জবানবন্দিতে এজাহারভুক্ত নয়জনসহ রোববার গ্রেপ্তার হওয়া রমজান, আলাউদ্দিন ও আরও একজনের নাম আসে।

পুলিশ তদন্ত শেষে গত বছরের ১৮ জানুয়ারি আদালতে গ্রেপ্তার নয়জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দিলেও জবানবন্দিতে নাম আসা তিনজনকে মামলা থেকে অব্যাহতির সুপারিশ করে।

অভিযোগপত্রটি আমলে না নিয়ে আদালত এবছরের ১৫ মে মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য পিবিআইকে নির্দেশ দেয় বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা সন্তোষ।

পিবিআই তদন্ত করতে গিয়ে রমজান ও তুফানকে আটক করে বলে জানান তিনি।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত