টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

৮৮ বছর পর ইংল্যান্ড…

  চট্টগ্রাম, ২৩ অক্টোবর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস): চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের পিচ প্রথম দিন থেকেই স্পিনারদের সহায়তা করে আসছে। ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংসের ১০টি উইকেটই তুলে নিয়েছিলেন বাংলাদেশি স্পিনাররা। দারুণ বোলিং করেছেন দুই ইংলিশ স্পিনার আদিল রশিদ ও মঈন আলি। সব মিলিয়ে চট্টগ্রাম টেস্টের ফলাফলে স্পিনাররাই পার্থক্য গড়ে দেবে বলেই মনে হচ্ছে।

স্পিন-সহায়ক পিচে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে পেসার স্টুয়ার্ট ব্রডের সঙ্গে বোলিংয়ে জুটি গড়েন স্পিনার গ্যারেথ ব্যাটি। দ্বিতীয় ইনিংসে প্রথম ওভার করার জন্যই ইংলিশ অধিনায়ক অ্যালেস্টার কুক বল তুলে দেন ব্যাটির হাতে। পেসবান্ধব ইংল্যান্ডই যে স্পিন-নির্ভর হয়ে পড়েছে সেটি বলাই যায়।

এদিকে চট্টগ্রাম টেস্টে রেকর্ড গড়েছে ইংল্যান্ড। ১৯২৮ সালের পর প্রথমবারের মতো কোনো টেস্টের দুই ইনিংসেই স্পিন দিয়ে ওপেন করায় ইংলিশরা। ১৯২৮ সালে ডারবান টেস্টের দুই ইনিংসেই বোলিংয়ে জুটি গড়েছিলেন সাবেক ইংলিশ স্পিনার স্যাম স্টেপলস। সেই ঘটনার ৮৮ বছর পর প্রথমবারের মতো এমন কীর্তি গড়লো টেস্ট ক্রিকেটের কুলিন দলটি।

ইংল্যান্ডের দুই ইনিংসের ২০টি উইকেটের একটি ছিল রানআউট। বাকি ১৯টির ১৮টিই নেন বাংলাদেশের স্পিনাররা। অন্যদিকে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে সমান ৫টি করে উইকেট নিয়েছিলেন ইংলিশ পেসাররা। দ্বিতীয় ইনিংসের প্রথম উইকেটটি গেছে স্পিনার মঈন আলির দখলে।

ডারবান টেস্টে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৮ উইকেটে হেরে গিয়েছিল ইংল্যান্ড। ২৮৬ রানের লক্ষ্যে চট্টগ্রাম টেস্টে ব্যাটিং করছে বাংলাদেশ। এবারও কি ইংলিশদের বিপক্ষে বিজয়ের হাসি হাসবে স্বাগতিকরা?

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত