টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চূড়ান্ত বিতর্কেও হিলারির কাছে ধরাশায়ী ট্রাম্প

চট্টগ্রাম,২০ অক্টোবর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস):: : তৃতীয় ও শেষ প্রেসিডেন্সিয়াল বিতর্কেও হিলারির কাছে ধরাশায়ী রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প।

নারী অধিকার, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ভূমিকা বিষয়ে হিলারির যুক্তির কাছে দাঁড়াতে পারেননি এ রিপাবলিকান প্রার্থী।

হিলারি ক্লিনটন বলেন, ট্রাম্প পুতিনের ‘পুতুল’ হিসেবে কাজ করছেন। সে সঙ্গে হিলারিকে হারাতে অনবরত পুতিনের দারস্থ হচ্ছেন।

তিনি আরো বলেন, সাইবার হামলার পরে ট্রাম্পের উচিত ছিল পুতিন এবং রাশিয়াকে বর্জন করা। কিন্তু তিনি ভাবছেন রাশিয়ার সরকারি বাহিনী আমাদের রক্ষা করতে এগিয়ে আসবেন।

পুতিনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা অস্বীকার করে ট্রাম্প বলেন, তিনি পুতিনের ঘনিষ্ঠ নন। তবে হিলারির চেয়ে তার সঙ্গে ভালো সম্পর্ক রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের। তিনি (পুতিন) হিলারি এবং আমাদের প্রেসিডেন্টকে (বারাক ওবামা) সম্মান করেন না।

এর জবাবে পুনরায় ট্রাম্পকে পুতিনের ‘পুতুল’ বলে উল্লেখ করেন।

হিলারি অভিযোগ করে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে সাম্প্রতিক সাইবার হামলার জন্য রাশিয়া ও পুতিনের নিন্দা করতে অপারগতা প্রকাশ করেন ট্রাম্প।

‘আমাদের রক্ষায় শপথ নেওয়া সামরিক ও বেসামরিক গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের বাদ দিয়ে তিনি (ট্রাম্প) ভ্লাদিমির পুতিনকে বিশ্বাস করেছেন’, বলেন হিলারি।

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা এবং হোমল্যান্ড সিকিউরিটি বিভাগের ভাষ্য, সম্প্রতি ডেমোক্রেটিক ন্যাশনাল কমিটির ওপর সাইবার হামলা ও চুরি হওয়া ই-মেইল ফাঁসে রাশিয়ার কর্তাব্যক্তিরা দায়ী।

উল্লিখিত বিষয়ে ট্রাম্পের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন হিলারি। ট্রাম্পকে পুতিনের ঘনিষ্ঠ বলে অভিযোগ করেন ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী। তবে ট্রাম্প এ অভিযোগ অস্বীকার করেন। তিনি বলেন, পুতিনের সঙ্গে হিলারির চেয়ে ভালো সম্পর্ক স্থাপন করবেন তিনি।

‘সে (পুতিন) আমার সম্পর্কে চমৎকার কথা বলেছে’, বলেন ট্রাম্প।

হিলারির উদ্দেশে ট্রাম্প বলেন, ‘তার (হিলারি) প্রতি তার (পুতিন) কোনো শ্রদ্ধা নেই, আমাদের প্রেসিডেন্টের প্রতি তার কোনো শ্রদ্ধা নেই এবং আমি আপনাকে যা বলব, সেটা হলো, আমরা খুব মারাত্মক সমস্যায় আছি।’

জবাবে ট্রাম্পের উদ্দেশে হিলারি বলেন, ‘ভালো কথা, এটা এ জন্য যে, সে (পুতিন) যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে একজন পুতুলকে (ট্রাম্প) পাবে।’

ছাড় দেওয়ার পাত্র নয় ট্রাম্প। হিলারির উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘না, আপনি পুতুল।’

ট্রাম্প আরো বলেন, ‘ট্রাম্প নয়, হিলারি নিজেই একজন পুতুল। পুতিনের সঙ্গে আমার কখনো দেখা হয়নি। হিলারি পুতিনকে পছন্দ করেন না, কারণ পুতিন সব সময় হিলারির সঙ্গে ‘প্রতারণা’ করেছেন।’

এছাড়াও বিতর্কে যে সকল বিষয়ে উঠে আসে তা হল সুপ্রিম কোর্ট, গর্ভপাত, অস্ত্র আইন, অভিবাসন।

স্থানীয় সময় বুধবার রাত ৯ টায় (বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার সকাল ৭ টায়) লাস ভেগাসের ইউনিভার্সিটি অব নেভাদায় দেড় ঘন্টাব্যাপী এ বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়।

বিতর্কটি সঞ্চালনা করেন ফক্স নিউজ সানডের উপস্থাপক ক্রিস ওয়ালেস। ১৫ মিনিট করে ছ’টি ধাপে এ বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত