টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

মাকে বাবা বলেও ডাকতো রাসেল: প্রধানমন্ত্রী

hasiচট্টগ্রাম, ১৮ অক্টোবর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস): : কান্না জড়িত কণ্ঠে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছোট্ট শিশু রাসেলের স্মৃতিচারণ করেছেন।

তিনি বলেন, ছোট থেকে রাসেল বড় হয়েছে বাবা-মা,ভাই-বোন সবার স্নেহ নিয়ে। কিন্তু কতোটুকু পেয়েছে পিতৃস্নেহ? তাকে বড় হতে হয়েছে পিতৃস্নেহ বঞ্চিত হয়ে।

মঙ্গলবার রাজধানীতে শেখ রাসেলের ৫৩তম জন্মদিন পালন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে স্মৃতিচারণ করেন তিনি।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কারাজীবনের কথা বলতে গিয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা বলেন, আমরা যখন বাবার সঙ্গে দেখা করতে কারাগারে যেতাম, তখন রাসেলকে সেখান থেকে নিয়ে আসাটা কষ্টকর হতো।

তিনি বলেন, সে বাবাকে ছেড়ে আসতে চাইতো না। তখন তার বা কতোইবা বয়স? ঠিকমতো কথাও বলতে শেখেনি। সে বাবাকে খুঁজে বেড়াতো।

আবেগ আপ্লুত হয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মা বলতেন যে, ‘আমিই তো তোমার বাবা।’ তখন সে মাকে মা বলেও ডাকতো, বাবা বলেও ডাকতো। এভাবেই রাসেল ছোট থেকে বড় হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, আগামী প্রজন্মকে ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত থাকতে হবে। কেননা, ত্যাগের মধ্য দিয়ে মহান কিছু অর্জন করা সম্ভব।

রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে ১৫ আগস্টকে কারবালার সঙ্গে তুলনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ওই দিন বঙ্গবন্ধুর পরিবারের কাউকে রেহাই দেয়া হয়নি। বঙ্গবন্ধুর রক্ত নিশ্চিহ্ন করতে ছোট শেখ রাসেলকে হত্যা করা হয়েছে। বাংলাদেশকে স্বাধীনতা এনে দেয়ার অপরাধে বঙ্গবন্ধুর পরিবারকে হত্যা করা হয়।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর রক্ত নিশ্চিহ্ন করতে ঘাতকরা রাসেলকে হত্যা করেছে। যেকোনো ত্যাগ স্বীকারে আগামী প্রজন্মকে প্রস্তুত থাকাতে হবে। সব কষ্ট বুকে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে কাজ করে যাচ্ছি। বাংলাদেশের কোনো শিশু লেখাপড়া থেকে বঞ্চিত হবে না। বাংলাদেশের মানুষ কারো কাছে মাথা নত করবে না।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত