টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বাংলাদেশ-চীন ভালো বন্ধু: শি জিনপিং

hচট্টগ্রাম, ১৪ অক্টোবর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস):: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ফলপ্রসূ বৈঠক হয়েছে জানিয়ে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বলেছেন, চীন ও বাংলাদেশের মধ্যকার সম্পর্ক এখন নতুন যুগের সূচনা করেছে। বাংলাদেশ ও চীন ভালো প্রতিবেশী বন্ধু।

শুক্রবার বিকালে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এবং বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দ্বিপক্ষীয় বৈঠক শেষে যৌথ ঘোষণায় তিনি এসব কথা বলেন।

সামাজিক-অর্থনৈতিকসহ সব খাতেই চীন ও বাংলাদেশ পরস্পর সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন দুই দেশের নেতারা।

এর আগে দুই দেশের মধ্যে ২৭টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হয়। এছাড়াও ছয়টি প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়।

এর মধ্যে চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণ, সড়ক অবকাঠামো, পায়রায় ১৩২০ মেগাওয়াটের বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণসহ বিভিন্ন প্রকল্প রয়েছে।
শি জিনপিং বলেন, ইতিহাসের নতুন মাত্রায় দুই দেশের সম্পর্ক জনগণের উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে। সড়ক অবকাঠামো উন্নয়নে সহযোগিতা করবে চীন। সমুদ্রসীমা রক্ষায় যৌথভাবে কাজ করতে চায় চীন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, চীনের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সফল বৈঠক হয়েছে। আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে দুই দেশের সম্পর্ক আরো উন্নত হলো। দুই দেশের মধ্যকার বিভিন্ন চুক্তি ও সমঝোতার মধ্য দিয়ে সম্পর্ক আরো শক্তিশালী হলো। বাংলাদেশকে দারিদ্র্যমুক্ত করতে চীন সহযোগিতা করবে।

তিনি বলেন, ‘আমরা ব্যবসা ও বিনিয়োগ, অবকাঠামো, শিল্প, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ও কৃষি খাতে একযোগে কাজ করতে ঐকমত্যে পৌঁছেছি।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আজ আমরা এখানে ২৭টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের সাক্ষী হলাম। এই চুক্তিগুলো হয়েছে ব্যবসা, বিনিয়োগ, সমুদ্র অর্থনীতি, বিসিআইএম-ইসি, সড়ক ও সেতু, রেলপথ, পাওয়ার, সমুদ্র, আইসিটি, শিল্প উৎপাদন, সক্ষমতা বৃদ্ধি ও দক্ষতার উন্নয়ন সংক্রান্ত।’

মতামত