টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

লোডশেডিং যন্ত্রনায় কাতর ফটিকছড়ির গ্রাহকরা

স্বাভাবিক হতে সময় লাগবে এক সপ্তাহ: ডিজিএম

মীর মাহফুজ আনাম
ফটিকছড়ি থেকে

চট্টগ্রাম, ০৯ অক্টোবর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস): হাটহাজারী বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনে আবারো যান্ত্রিক বিপর্যয় ঘটেছে। যার প্রভাব পড়েছে পল­ী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর আওতাধীন ফটিকছড়ি উপকেন্দ্রের নিয়ন্ত্রনাধীন পাঁচটি ফিডারের এলাকা সমূহতে। বিগত ৪/৫ দিন যাবৎ এ উপকেন্দ্রের আওতাধীন এলাকা নাজিরহাট, বিবিরহাট সদর, রোসাংগিরী , সুয়াবিল, সুন্দরপুর, পাইন্দং, কাঞ্চননগর, হারুয়ালছড়ি, ভূজপুর, নারায়নহাট, মির্জারহাট, দাঁতমারা, বাগান বাজার এলাকায় দৈনিক চার ঘন্টাও বিদ্যুৎ পাচ্ছেন না গ্রাহকরা। তবে, আজাদী বাজার উপকেন্দ্রের নিয়ন্ত্রনাধীন দক্ষিণ ফটিকছড়ি এলাকার বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভবিক রয়েছে।

এ ব্যাপারে ফটিকছড়ি উপকেন্দ্রের ডিজিএম নিয়াজ উদ্দিন দৈনিক ফটিকছড়ির খবরকে বলেন, ‘হাটহাজারী সঞ্চালন লাইনে যান্ত্রিক বিপর্যয় হওয়াতে আমরা ১৪ মেঘাওয়াট চাহিদার প্রেক্ষিতে বর্তমানে পাচ্ছি ৫ থেকে ৬ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ। যার কারণে অতিমাত্রায় লোডশেডিং করতে হচ্ছে। গতকাল রাতে গাজীপুর থেকে নষ্ট হওয়া যন্ত্রটি নিয়ে আসা হয়েছে। আজ/কালের মধ্যে এটি প্রতিস্থাপন করা হবে। এটি সম্পূর্ণভাবে সচল হতে আরো এক সপ্তাহ সময় লাগতে পারে। আশা করি এক সপ্তাহের মধ্যে গ্রাহকদের দুর্ভোগ দূর হবে। বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে।’

ফটিকছড়ি উপজেলায় পল­ী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর দু‘টি উপকেন্দ্র রয়েছে ৭০ হাজার গ্রাহক। উপকেন্দ্রগুলো একটি বিবিরহাট সদর ও অপরটি আজাদী বাজারে অবস্থিত। আজাদী বাজার উপকেন্দ্রে সরাসরি রাউজান সঞ্চালন লাইন হতে বিদ্যুৎ নিয়ে আসা হয়। বিবিরহাট উপকেন্দ্রে বিদ্যুৎ আসে হাটহাজারী সঞ্চালন কেন্দ্রও হতে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত