টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

খাদিজার ওপর হামলাকারীর শাস্তি হবেই: প্রধানমন্ত্রী

চট্টগ্রাম, ০৬ অক্টোবর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস):: কে কোন দল করে তা দেখা হবে না, খাদিজার ওপর হামলাকারীর শাস্তি হবেই বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দশম জাতীয় সংসদের ১২তম অধিবেশনের সমাপনী ভাষণে বৃহস্পতিবার তিনি এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, “মাঝে মাঝে কিছু ঘটনা ঘটে যা আমাদের অত্যন্ত অবাক করে দেয়। একটি মেয়েকে জনসম্মুখে কোপানো হয়েছে, মানুষ দাঁড়িয়ে তা দেখেছে। কেউ ভিডিও করছে, মোবাইল ফোনে ছবি তুলছে, কেউ মেয়েটাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসেনি। কেন এই মানবিক মূল্যবোধগুলো হারিয়ে গেল, কেন ওই মেয়েটিকে বাঁচাতে এগিয়ে গেল না।”

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “অপরাধীকে ধরা হয়েছে। যারাই অপরাধী, যে অপরাধই করুক সে শাস্তি পাবেই। তাকে শাস্তি পেতেই হবে।”

তিনি বলেন, “কোনো কোনো পত্রিকায় এসেছে ওই ছেলেটি অমুক দল, তমুক দল করে। এখানে কোনো দলীয় কোন্দলের বিষয় ছিল না বা দল হিসেবে তাকে কেউ হত্যা করতে যায়নি। পত্রিকায় এসেছে প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হয়ে সে খাদিজাকে হত্যা করতে গেছে। এজন্য একটা মানুষকে হত্যা করতে হবে? পত্রিকা এবং কিছু লোক এটাকে দলীয় হিসেবে প্রচারের চেষ্টা করছে। দলীয় হিসেবে তাদেরকে কেউ প্রশ্রয় দিচ্ছে না।”

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “বিএনপি অনেক নেতা এ ব্যাপারে অনেক কথা বলছেন। তারা যখন জীবন্ত মানুষের গায়ে পেট্রোল ঢেলে দিয়ে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মেরেছে সে কথা কি তারা ভুলে যাচ্ছে। পুলিশকে ধরে নিয়ে গিয়ে তাকে মেরে ক্ষত-বিক্ষত করেছে। তাও আমরা দেখেছি। এভাবে প্রকাশ্যে মানুষ হত্যা করা বিএনপি-জামায়াতই শিখিয়েছে। এরাই পথ দেখিয়েছে। এই নৃশংসতা করে করে মানুষের ভেতরে একটা পশুত্বের জন্ম দিয়েছে।”

শেখ হাসিনা বলেন, “কে কোন দল করে তা বিবেচ্য বিষয় নয়, অপরাধ যে করবে তার বিচার হবেই। তিনি বলেন, জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান রয়েছে। যারাই এ জঙ্গিবাদের সঙ্গে জড়িত তাদের বিচার হচ্ছে এবং হবে।”

অভিভাবক, শিক্ষক, মসজিদের ইমাম, ধর্মীয় শিক্ষক ও দেশবাসীকে তাদের সন্তান ও ছাত্র-ছাত্রীদের ব্যাপারে খোঁজ-খবর রাখার আহ্বান জানান তিনি।

সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিস গত সোমবার এমসি কলেজ কেন্দ্র থেকে বিকেলে স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষা দিয়ে বের হয়। এরপরই কলেজ ক্যাম্পাসে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ শাবি শাখার সহ-সম্পাদক বদরুল আলম ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করে। অবশ্য পরে তাকে ছাত্ররা ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে দেয়।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত