টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

কক্সবাজার সৈকতে ঢাবি শিক্ষার্থীর মৃতদেহ উদ্ধার

চট্টগ্রাম, ০২ অক্টোবর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস):: বেড়াতে এসে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে নিখোঁজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যায় ছাত্রের উদ্ধার করা হয়েছে।

নিখোঁজের ৩০ ঘন্টা পর রেববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় কক্সবাজার সদর উপজেলার খুরুশকুল ইউনিয়নের রাস্থার পাড়া সংলগ্ন বাঁকখালী নদী থেকে ভাসমান অবস্থান মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয়।

মো. রিফাত হাসানের (২৩) নামে ওই ছাত্র ঢাকা বিশ্ববিদ্যলয়ের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান জাতীয় বস্ত্র প্রকৌশল ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের ফেব্রিক্স বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ও নওগাঁ জেলার ফতেপুরের গোলাম হায়দারের ছেলে।

১ অক্টোবর সহপাঠিদের সঙ্গে সাগরে গোসলে নেমে তিনি নিখোঁজ হয়েছিলেন।

কক্সবাজার সদর উপজেলার খুরুশকুল ইউপি চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন জানান, সন্ধ্যায় স্থানীয় লোকজন বাঁকখালী নদীতে ভাসমান অবস্থায় এক যুবকের মৃতদেহ দেখতে পেয়ে ইউনিয়ন পরিষদকে খবর দেয়। পরে ইউপির দফাদার ও চৌকদাররা গিয়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করে পুলিশকে খবর দেয়। মৃতদেহের পরনে নীল গেঞ্জি, হাতে বেসলেট ও থ্রি কোয়াটার প্যান্ট রয়েছে বলে জানান তিনি।

মৃতদেহ উদ্ধারকারী কক্সবাজার সদর থানার এসআই মানস বড়ুয়া জানান, মৃতদেহটি উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে।

কক্সবাজার ট্যুরিষ্ট পুলিশের জৈষ্ঠ্য সহকারী পুলিশ সুপার রায়হান কাজেমী জানান, মৃতদেহটি ঢাবি’র নিখোঁজ শিক্ষার্থী মো. রিফাত হাসানের। তার সহপাঠি মিরাজ ও লিমন মৃতদেহটি সনাক্ত করেছেন।

উল্লেখ্য, ১ অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান জাতীয় বস্ত্র প্রকৌশল ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের চতুর্থ বর্ষের ৪৩ জন শিক্ষার্থীর একটি দল শনিবার সকালে কক্সবাজার বেড়াতে আসেন। কক্সবাজার এসে তারা শহরের হোটেল-মোটেল জোন এলাকার আবাসিক হোটেল রিগ্যাল প্যালেসে উঠেন। তাদের মধ্যে ৪০ জন সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্ট সংলগ্ন সাগরে গোসলে নামেন। তখন থেকেই নিখোঁজ ছিলেন রিফাত।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত