টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা বাজছে বিয়ের সানাই!

dsc

ছবিঃ অনুপম বড়ুয়া

চট্টগ্রাম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস)::  রাত পোহালেই বাজবে বিয়ের সানাই। চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় বুধবার বেলা ১১টায় বিয়ের পিঁড়িতে বসবে কনে সিংহি নোভা ও বর সিংহ বাদশা। বিয়ের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন। চিড়িয়াখানার চিকিৎসক সাহাদাত হোসেন শুভ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

চট্টগ্রামের কনে নোভার জন্য বর বাদশাকে আনা হয়েছে রংপুর থেকে। বিয়ের সব আয়োজন ইতোমধ্যে সম্পন্ন করেছে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। বিয়েতে আমন্ত্রিত তিন শতাধিক অতিথির মধ্যে সাংবাদিকই থাকবেন আড়াইশ। এছাড়া চিড়িয়াখানার পৃষ্ঠপোষক, পরিচালনা কমিটির সদস্য, কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও অংশ নেবেন বিয়েতে।

বুধবার বিয়ে হলেও আজ (মঙ্গলবার) থেকে শুরু হয়েছে শত মানুষের আনাগোনা। সবাই আসছে বর-কনেকে দেখতে। সন্ধ্যার পর শুরু হবে মেহেদি উৎসব।

গত ৫ সেপ্টেম্বর বর বাদশাকে রংপুর থেকে চট্টগ্রামে আনা হয়েছিল। ২০০৫ সালের ১৬ জুন চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় জন্ম হয়েছিল দুই বোন বর্ষা ও নোভার। তাদের জন্মের কিছুদিন পর মা লক্ষ্মী এবং ২০০৮ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি বাবা রাজ মারা যায়। এরপর আর কোনো নতুন সিংহ চিড়িয়াখানায় আনা হয়নি। তাই চিড়িয়াখানায় কোনো পুরুষ সিংহ না থাকায় বর্ষা ও নোভা কুমারী থেকে যায়। পরে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও উপযুক্ত সিংহ না পাওয়ায় তাদের ঘর-সংসার করাও হয়ে ওঠেনি।

সম্প্রতি রংপুর চিড়িয়াখানায় দুটি পুরুষ সিংহের খবর পান চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ। এরপর দুই বোনের মধ্যে বর্ষাকে রংপুর চিড়িয়াখানার রাজার সঙ্গী হিসেবে গত ২৮ আগস্ট নিয়ে যাওয়া হয়। আর নোভার জন্য আনা হয় বাদশাকে।

ডেপুটি কিউরেটর মঞ্জুর মোরশেদ জানান, রংপুর থেকে বাদশাকে ট্রাকে আনা হয়েছে। পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাওয়ানোর জন্য এবং দুটি সিংহ যেন মারামারি না করে সে জন্য পৃথক খাঁচায় পাশাপাশি রাখা হয়েছে। ভ্রমণের ক্লান্তি এখনো পুরোপুরি কাটিয়ে উঠতে পারেনি বাদশা। এরপরও পাশাপাশি দুটি খাঁচায় কনে নোভার সঙ্গে ভাব বিনিময় শুরু হয়েছে বাদশার।

বাদশাকে প্রতিদিন পাঁচ কেজি মুরগির মাংস দেওয়া হলেও সে সর্বোচ্চ চার কেজি পর্যন্ত খেতে পারছে। তবে এখনো গরুর মাংস দেওয়া হয়নি তাকে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত