টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বান্দরবানে পর্যটন মোটেল সিলগালা

parjatan-motel-bandarbanচট্টগ্রাম, ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস):: বান্দরবানের পর্যটন মোটেল প্রতিষ্ঠানটি সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে। চট্টগ্রাম কাস্টম এক্সাইজ ভ্যাট কমিশনারের নির্দেশে বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় প্রশাসন এটি সিলগালা করে দেয়।

মোটেলটি সিলগালা করে দেয়ায় বান্দরবানে বেড়াতে আসা অনেক পর্যটক ভোগান্তির মধ্যে পড়েছেন। ঈদের ছুটিতে ভ্রমণের জন্য মোটেলটিতে অনেকে অগ্রিম বুকিং করেছেন।

প্রশাসনের কর্মকর্তারা জানায়, বার্ষিক মোট ভাড়ার ওপর ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রদানের নিয়ম থাকলেও ২০০৬ সাল থেকে ব্যবসায়ী মো. হুমায়ুন কবির তা প্রদান করেননি।

প্রায় সাড়ে ৩৩ লাখ টাকা বকেয়ার দায়ে কর্তৃপক্ষ এটি সিলগালা করে দেয়।

কাস্টম ও ভ্যাট কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ইয়াসমিন বেগম জানান, এ পর্যন্ত পর্যটন মোটেলটিতে ৩৩ লাখ ৬৬ হাজার টাকা ভ্যাট বকেয়া রয়েছে। বার বার তাগাদা দেওয়ার পরও ভ্যাট প্রদান না করায় চট্টগ্রাম কাস্টম এক্সাইজ ভ্যাট কমিশনারের নির্দেশে পর্যটন মোটেলটি সিলগালা করে দেওয়া হয়।

পর্যটন মোটেলের ম্যানেজার সাইফুল ইসলাম বলেন, ভ্যাটের বিষয়ে কর্তৃপক্ষ তাদের কোনো নোটিশ প্রদান করেনি। হঠাৎ করে কর্তৃপক্ষ এটি সিলগালা করে দেওয়ায় মোটেলের নিয়মিত গ্রাহক ও পর্যটকরা সমস্যার মধ্যে পড়েছেন।

এদিকে ২০০৩ সালে পর্যটন কর্পোরেশন বান্দরবান শহরের কাছে মেঘলা এলাকায় মনোরম পরিবেশে পর্যটন মোটেলটি নির্মাণ করে। ব্যবসায়িক দিক থেকে লাভজনক না হওয়ায় ২০০৪ সালে পর্যটন কর্পোরেশন মোটেলটি বেসরকারি খাতে ছেড়ে দেয়। বান্দরবানের স্থানীয়ব্যবসায়ী মো. হুমায়ুন কবির ২০০৪ সালে বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন থেকে মোটেলটি বার্ষিক প্রায় ৩৩ লাখ টাকায় ভাড়া নেন।

জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বনিক বলেন, পর্যটন শিল্পের বিকাশে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। পর্যটন মোটেল বন্ধ হলেও সরকারি-বেসরকারিভাবে গড়ে তোলা অনেক হোটেল মোটেল রয়েছে। আশা করি কোনো সমস্যা হবেনা। তারপরও হঠাৎ বন্ধের বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত