টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে চট্টগ্রামে বিএনপির বর্ণাঢ্য র‌্যালী

CTG-BNPচট্টগ্রাম, ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৬ (সিটিজি টাইমস):বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে চট্টগ্রামে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়েছে বর্ণাঢ্য র‌্যালী। বৃহম্পতিবার বিকালে প্রচন্ড বৃষ্টি উপেক্ষা করে নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে হাজার হাজার নেতাকর্মীর এ র‌্যালী।

র‌্যালী শেষে নগরীর নাসিমন ভবনস্থ দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত বিশাল সমাবেশে বক্তারা বলেন, ১৯৭৮ সালে ১লা সেপ্টেম্বর ১৯ দফা কর্মসূচি ও বহুদলীয় গণতন্ত্রের মূলমন্ত্র নিয়ে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা বলে যারা সরকারে আছে তারা আজ মুক্তিযুদ্ধের মূল ভিত্তি ভুলে গেছেন। চারটি মূলমন্ত্র নিয়ে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল, গণতন্ত্র, মানবিক মর্যাদা, সামাজিক ন্যায় বিচার, সাম্যতা আজকের প্রেক্ষাপটে আওয়ামীলীগ সরকার সবকিছুই আজ বিসর্জন দিয়েছেন।

যারা যুদ্ধক্ষেত্রে অসম সাহসিকতার সাথে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করে মুক্তিবাহিনীকে সংগঠিত করে রণাঙ্গনে যুদ্ধ করেছিলেন তাদের প্রতি বিমাতাসুলভ আচরণ করে মহান মুক্তিযোদ্ধাদের অসম্মানিত করছে। শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান শুধু স্বাধীনতার ঘোষণাই দেননি তিনি মুক্তিবাহিনীদের সুসংগঠিত করে জেড ফোর্স গঠন করে রণাঙ্গনে যুদ্ধ করেছিলেন। আজ সেই মহান স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতা পদক কিংবা বীরোত্তম খেতাব কেড়ে নেওয়া গভীর ষড়যন্ত্র করছে এই অবৈধ সরকার।

সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে মহানগর বিএনপির সভাপতি ডাঃ শাহাদাত বলেন, দেশে আজ আইনের শাসন নেই, মানবাধিকার নেই, গণতন্ত্র নেই, সামাজিক ন্যায় বিচার নেই, আছে খুন, গুম, ধর্ষণ, রাহাজারি, চাঁদাবাজি, গুপ্তহত্যা, নির্যাতন-নিপীড়ন, মামলা-হামলার মাধ্যমে দেশ একটি পুলিশী রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে। তাই দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে দেশ বাঁচানোর লক্ষে এবং মানুষ বাঁচানোর লক্ষে একটি বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

সমাবেশে প্রধান বক্তা কেন্দ্রীয় বিএনপির চট্টগ্রাম বিভাগী সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর শামিম বলেন, দেশে এখন ক্রানিকাল চলছে, স্বৈরচারী কায়দায় এক দলীয়ভাবে দেশ শাসন করছে এই অবৈধ সরকার। বিএনপির চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আগামী দিনে এই স্বৈরচারী সরকারের পতন ঘটিয়ে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা হবে।

নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর বলেন, এই স্বৈরচারী, জুলুমবাজ সরকারের অত্যাচার, নির্যাতন-নিপীড়নের বিরুদ্ধে আমাদের সকলকে রাজপথে গণআন্দোলনে এগিয়ে আসতে হবে। আগামী দিনে ঐক্যবদ্ধভাবে চট্টগ্রাম মহানগরের প্রতিটি নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে গণআন্দোলন গড়ে তুলে হবে।

সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, বিএনপি নেতা এম.এ আজিজ, সৈয়দ আজম উদ্দিন, এস.এম সাইফুল আলম, মোঃ আলী, হারুণ জামান, শেখ নুরুল্লাহা বাহার, ইস্কান্দর মির্জা, শফিকুর রহমান স্বপন, আর.ইউ চৌধুরী শাহীন, ইয়াসিন চৌধুরী লিটন, অধ্যাপক নুরুল আলম রাজু, সবুক্তিগীন সিদ্দিকী মুক্কী, আনোয়ার হোসেন লিপু, মোঃ শাহআলম, মোঃ সালাউদ্দিন, ইকবাল চৌধুরী, জি.এম আইয়ুব খান, ফাতেমা বাদশা, মনোয়ারা বেগম মনি, শাহেদ বক্স, শামসুল হক, মোঃ মহসিন, টিংকু দাশ, কামরুল ইসলাম, গাজী সিরাজ উল্লাহ, জেলী চৌধুরী, সিহাব উদ্দিন মুবিন, ইসমাইল বাবুল, বেলায়েত হোসেন বুলু, এইচ.এম রাশেদ খান, সাইফুর রহমান শপথ, মোঃ সাহেদ, মঞ্জুর আলম মঞ্জু, কাউন্সিলর আলহাজ্ব কমিশনার মাহবুব, ইছহাক চৌধুরী আলিম, আবতাব উর শাহিন, হাজী মোঃ তৈয়ব, আকতার খান, আলী আব্বাস খান, এস.এম জিয়া আকবর, সৈয়দ আহমদ, কাউন্সিলর আজম উদ্দিন, আলা উদ্দিন আলী নুর, কাউন্সিলর আবুল হাশেম, সৌরভ কোম্পানী, মাহবুবুল হক, শামশুল আলম, মোঃ সেকান্দর, মোঃ সালাউদ্দিন, হাসান মুরাদ, দিদারুল ইসলাম, মোঃ সাহাব উদ্দিন, আব্দুল বাতেন, মোঃ মহসিন, মীর কাওসার এলাহী, শওকত আজম খাজা, মুক্তিযোদ্ধা ফয়েজ আহমেদ।

এর আগে নানান শ্লোগান সম্বলিত ব্যানার পেস্টুন, প্লেকার্ড নিয়ে বাদ্য যন্ত্রের তালে তালে বর্ণাঢ্য র‌্যালী ভিআইপি টাওয়ারের সামনে থেকে শুরু হয়ে কাজীর দেউরী, নূর আহম্মদ সড়ক হয়ে লাভ লেইন হয়ে দলীয় কার্যালয় এসে শেষ হয়।

এতে হালিশহর, পতেঙ্গা, বন্দর, বাকলিয়া, চককাজার, কোতোয়ালী, পাঁচলাইশ, চান্দগাঁও বহদ্দার হাটসহ ৪১ ওয়ার্ড থেকে হাজার হাজার নেতা কর্মী অংশ নেয়।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত