টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

কর্তৃপক্ষের গাফেলতি ত্রুটিপূর্ণ ব্যবস্থাপনা কারণে ডিএপি ট্যাংকের বিস্ফোরণ

চট্টগ্রাম, ২৮  আগস্ট ২০১৬ (সিটিজি টাইমস):: ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল আলী আহমেদ খান জানিয়েছেন, ত্রুটিপূর্ণ ব্যবস্থাপনা ও রক্ষণাবেক্ষণের অভাবের কারণেই আনোয়ারার ডিএপি (ডাই-অ্যামোনিয়াম ফসফেট) কারখানার গ্যাস ট্যাংক বিস্ফোরণের দুর্ঘটনা ঘটছে।

রবিবার বিকেলে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সভায় তিনি এ তথ্য জানান।

বিগ্রেডিয়ার জেনারেল আলী আহমেদ খান বলেন, এ দুর্ঘটনার পেছনে কারখানার ত্রুটিপূর্ণ ব্যবস্থাপনা ছিল। পাশাপাশি গ্যাস ছড়িয়ে পড়ার পর তা মোকাবেলায় তাদের প্রস্তুতির অভাবও ছিল। এসময় তাদের নিজস্ব নিরাপত্তা ব্যবস্থাপনাও কাজ করেনি।

তিনি বলেন, স্বাভাবিকভাবে এভাবে গ্যাস ছড়িয়ে পড়লে তার নিঃসরণ বন্ধে প্রাথমিক পদক্ষেপ হিসেবে পানি ছিটানো হয়। কিন্তু সেসময় কারখানাটির পানি ছিটানোর সিস্টেমটি কাজ করেনি। এজন্য গ্যাস খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।

বাতাসের গতিবেগ পশ্চিমমুখী হওয়ায় বড় ধরনের মানবিক বিপর্যয় থেকে রক্ষা পাওয়া গেছে উল্লেখ করে ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক বলেন, আমাদের সৌভাগ্য ঘটনার সময় বাতাসের গতিবেগ পশ্চিমমুখী ছিল। এজন্য গ্যাস নদীর দিকে চলে যায়, যার ফলে আর বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

তিনি এ ধরনের পরিস্থিতি মোকাবেলায় সব কারখানার শ্রমিকদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার পাশাপাশি শিল্পাঞ্চলে আরও ফায়ার সার্ভিস স্টেশন স্থাপনের প্রয়োজনীয়তার কথা জানান।

এ দুর্ঘটনা মোকাবেলায় ফায়ার সার্ভিসের ৩০জন সুদক্ষ কর্মী কাজ করেছেন উল্লেখ করে বিগ্রেডিয়ার জেনারেল আলী আহমেদ খান বলেন, তারা (৩০জন) সিঙ্গাপুর থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে এসেছে।

এই অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা আমাদের জন্য বড় ধরনের শিক্ষা ছিল। কিন্তু আমাদের কর্মীরা খুব অল্প সময়ের মধ্যে তা মোকাবেলা করেছে।যথেষ্ট দায়বদ্ধতা নিয়ে কাজ করেছে। গ্যাস থেকে রেহাই পেতে কারখানার দুর্ঘটনা মোকাবেলা টিমের সদস্য ও কর্মীরা সবাই আগেই ঘটনাস্থল থেকে সরে যায়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আমাদের তদন্ত প্রতিবেদন তৈরি হয়ে গেছে। তদন্ত করে কারখানার যথেষ্ট ত্রুটি পেয়েছি। দায়িত্বহীনতার পরিচয় না দিলে এমন ঘটনা ঘটতো না। আমরা স্থানীয়দের বক্তব্য সংগ্রহ করেছি। সবার সঙ্গে কথা বলে আমরা জড়িতদের চিহ্নিত করেছি। তবে আমরা চাইছি বিসিআইসি’র টেকনিক্যাল দল তাদের প্রতিবেদন আগে জমা দিক। তারপর সাত কর্মদিবসের মধ্যে আমাদেরটা প্রকাশ করবো।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত