টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

রাঙ্গুনিয়ায় তুচ্ছ ঘটনায় কলেজ ছাত্র গুলিবিদ্ধ

আব্বাস হোসাইন আফতাব
রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি

unnamedচট্টগ্রাম, ২৪  আগস্ট ২০১৬ (সিটিজি টাইমস): রাঙ্গুনিয়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মো. শাহ আলম (১৯) নামে এক কলেজ ছাত্র গুলিবিদ্ধ হয়েছে। গুরুতর আহতবস্থায় তাকে উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। আহত যুবক উপজেলার সরফভাটা ইউনিয়নের ছনাগাজি গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলামের পুত্র। বুধবার (২৪ আগস্ট) সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় কলেজ মো. শাহ আলম সরফভাটা ইউনিয়নের ছনাগাজি এলাকায় পৌঁছলে স্থানীয় মো. নেছারুল­াহ (২৬) সহ ৭/৮ জন যুবক তার চাচাতো ভাই নেজাম উদ্দিনকে লাঠিসোটা দিয়ে মারতে দেখলে তাকে বাঁচাতে এগিয়ে যায়। এসময় হাতাহাতির এক পর্যায়ে নেছারুল­াহ অস্ত্র বের করে গুলি ছুঁড়লে শাহ আলমের দুই পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়। স্থানীয়রা পরে তাকে উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। গুলিবিদ্ধ শাহ আলম রাঙ্গুনিয়া কলেজের ১ম বর্ষের ছাত্র বলে জানা গেছে।

আহত শাহ আলমের চাচাত ভাই গিয়াস উদ্দিন জানান, মঙ্গলবার দুপুরে তার ভাই নেজাম মোটরসাইকেল নিয়ে সরফভাটার ছনাগাজি এলাকায় বাঁশের সাকো দিয়ে পার হতে গেলে স্থানীয় যুবক নেছারুল­াহর কয়েকজন সহযোগী তাকে বাঁধা দেয়। পরে এই নিয়ে বাক বিতন্ডা হয়। বাক বিতন্ডার জের ধরে মঙ্গলবার রাতে নেছারুল­াহ ও তার সহযোগীরা তাদের বাড়িতে অতর্কিত হামলা চালিয়ে তার বাবাকে মারধর করে ও ফাঁকা গুলি ছুড়ে। পরদিন বুধবার বিকালে নেজাম উদ্দিনকে ছনাগাজি মসজিদের সামনে একা পেয়ে নেছারুল­াহ ও তার সহযোগীরা তাকে লাঠি দিয়ে মারধর করে। তাকে বাঁচাতে চাচাতো ভাই কলেজ ছাত্র মো. শাহ আলম এগিয়ে গেলে তাকে নেছারুল­াহ গুলি করে পালিয়ে যায়।

রাঙ্গুনিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ হুমায়ুন কবির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গুলিবিদ্ধ হওয়ার বিষয় শুনেছি। এই ব্যাপারে তদন্ত করে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মতামত