টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

সন্তান লালন পালনে পিতা মাতাদের আরো ইতিবাচক ও দায়িত্ববান হতে হবে

PDEPচট্টগ্রাম, ২০ আগস্ট (সিটিজি টাইমস):: আন্তর্জাতিক সংস্থা সেভ দ্যা চিলড্রেন ইন্টারন্যাশনাল ইন বাংলাদেশ এর আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় বেসরকারী সেচ্ছাসেবী সংস্থা মমতা ২০১৩ সাল হতে চট্ট্রগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এলাকায় “ শিশুদের শারীরিক ও অবমাননাকর শাস্তি থেকে সুরক্ষা ” প্রকল্প বাস্তবায়ন করে আসছে । এ প্রকল্পের আওতায় মমতা শারীরিক ও অবমাননাকর শাস্তি থেকে সুরক্ষা এবং শিশুদের অধিকতর অংশগ্রহন নিশ্চিত করার জন্য শিশুদের মা -বাবা,অভিভাবক, শিক্ষক ,স্কুল ম্যানেজমেন্ট কমিটি,কর্মক্ষেত্র মালিক, সমাজ ভিত্তিক শিশু সুরক্ষা কমিটি- সিবিসিপিসি,জবাব দিহিতা নিশ্চিত করন কমিটি-এইসি, শিশু দল,স্কুল ভিত্তিক শিশু দল,ইয়্যুথ ফোরামের মাধ্যমে সভা, বিভিন্ন সমাজ সচেতনতা মূলক সভা কার্যক্রম,পাপেট শো, ইতিবাচক শৃঙ্খলা বিষয়ক প্রশিক্ষন পরিচালনা করে আসছে । মমতা ২০১৬ সালে প্রকল্পের কার্যক্রমে প্রকল্পের আওতাধীন এলাকার ১০৮ জন নিদিষ্ঠ শিশুর মা বাবা ও অভিভাবকদের শিশুদের শারীরিক ও অবমাননাকর শাস্তি থেকে সুরক্ষায় দৈনন্দিন শিশু লালন পালনে ইতিবাচক নিয়মানুবর্তিতা বিষয়ক প্রশিক্ষন প্রদান করবে । এরই ধারাবাহিকতায় মমতা পিপিএইচপি প্রকল্পের কর্ম এলাকার ১৩ নং ওয়ার্ডের নির্দিষ্ঠ মা বাবা ও অভিভাবকদের সমন¦য়ে মমতা কনফারেন্স হলে পিতামাতাদের দৈনন্দিন শিশু লালন পালনে ইতিবাচক নিয়মানুবর্তিতা বিষয়ক ৪ দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ গত ১৬ আগস্ট হতে শুরু হয়ে আজ ২০ আগষ্ট সম্পন্ন হয় । উক্ত প্রশিক্ষনের সমাপনী দিনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সার্টিফিকেট বিতরণ করেন মমতার প্রধান নির্বাহী আলহাজ্ব রফিক আহমদ । আরো উপস্থিত ছিলেন মমতার উপ-প্রধান নির্বাহী জনাব মোহাম্মদ ফারুক , মমতা কার্যনির্বাহী সদস্য জনাব মনসুর মাসুদ । প্রশিক্ষনের সমাপনী কার্যক্রমের শুরুতে প্রকল্পের ব্যাবস্থাপক কামরুন নাহার পারভীন সবার সামনে প্রশিক্ষনের উদ্দেশ্য এবং চারদিন ব্যাপী প্রশিক্ষন কার্যক্রমের বিস্তারিত বিষয় সম্পর্কে উপস্থাপন করেন ।মমতার কার্যকরী সদস্য মনসুর মাসুদ বলেন শিশু লালন পালন ক্ষেত্রে আপনারা ভাল বা ইতিবাচক যে নিয়ম কানুন গুলো শিখেছেন তাহা যদি আপনাদের সন্তানের বেড়ে উঠার সাথে প্রয়োগ করেন তাহলে তারা ভবিষ্যতে সুসন্তান হিসেবে গড়ে উঠবে । মমতার উপ-প্রধান নির্বাহী জনাব মোহাম্মদ ফারুক বলেন- শিশুদের শারিরীক ও অবমাননাকর শাস্তি থেকে সুরক্ষা প্রকল্পের মাধ্যমে শিশুদের অধিকার নিশ্চিত করনে মমতা যে উদ্যোগ এবং কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে তাহা নিঃ সন্দেহে শিশু সুরক্ষা বিশেষতঃ শিশুদের শারিরীক ও মানসিক শাস্তি বন্ধের পাশাপাশি শিশুদের অংশগ্রহন ও বিকাশের ক্ষেত্রে ব্যাপক ভাবে ভূমিকা রাখছে । আর শিশু লালন পালনে ইতিবাচক নিয়মানুবর্তীতা প্রশিক্ষণ একটি যুগান্তকারী কার্যক্রম যেটার মাধ্যমে মা-বাবারা সন্তান লালন পালনে আরো ইতিবাচক ও আন্তরিক হবে ।প্রধান অতিথির বক্তব্যে মমতার প্রধান নির্বাহী জনাব আলহাজ্ব রফিক আহমদ বক্তব্যের শুরুতে প্রশিক্ষনে আগত মা বাবা ও অভিভাবকদেও যথাসময়ে উপ¯িহত থেকে প্রশিক্ষনকে সাফল্যমন্ডিত করায় ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ।তিনি বলেন আপনারা সন্তান লালন পালনে ইতিবাচক চর্চার মাধ্যমে পুরানো ধ্যান ধারনার ও বিশ্বাসের যে পরিবর্তন আনছেন তাহা নিঃ সন্দেহে প্রশংসনীয় । মমতা কর্তৃক বাস্তবায়িত পিপিএইচপি প্রকল্পের বাস্তবায়নে প্রকল্প কর্মএলাকার মা বাবা ও অভিভাবকরা যারা এ কার্যক্রমের সাথে সম্পৃক্ত থেকে মমতাকে যে সহযোগিতা করে যাচ্ছেন সে জন্য শিশুর মা- বাবা, অভিভাবকদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ।তিনি আরো বলেন ইতিবাচক নিয়মানুবর্তীতা প্রশিক্ষন একটি উসিলা মাত্র । যেটা অর্জনের মাধ্যম মা বাবারা সন্তান লালন পালনে দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা গ্রহনের পাশাপাশি এর সফল বাস্তবায়নের মাধ্যমে শিশুদের সুসন্তান হিসেবে গড়ে তোলবে এবং তারি মাধ্যমে তারা সমাজ,দেশ, ও জাতি গঠনে ভুমিকা রাখবে । এবংতিনি আশা করেন এ প্রশিক্ষণ গ্রহনের মাধ্যমে শিশুদের লালন পালনে শিশুদের জীবন মান উন্নয়ন ও অংশগ্রহনে মা-বাবারা আরো সচেতন ও আন্তরিক হবেন ।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি 

মতামত