টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বড় নাশকতার পরিকল্পনা ছিল চট্টগ্রামে আটক জঙ্গিদের : পুলিশ

millitantচট্টগ্রাম, ১৯ আগস্ট (সিটিজি টাইমস): চট্টগ্রামে গ্রেফতার জঙ্গি সংগঠন আনসারউল্লাহ বাংলা টিমের (এবিটি) তিন সদস্যের বড় ধরনের নাশকতার পরিকল্পনা ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। চট্টগ্রাম মহানগরী ও পটিয়া থেকে আহমেদ হোসেন রনি, ফরহাদ হোসেন এবং ইমরান হোসেন নামে তিন জঙ্গিকে আটকের পর এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানায় পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, ধর্মান্তরিত এবিটির নেতা মুসয়াব ইবনে উমায়েরের হাত ধরেই জঙ্গিসংগঠনে যোগ দেয় ফরহাদ, ইমরান ও আহমেদ হোসেন রনি। এদের মধ্যে রনি স্বাধীনতাবিরোধী একটি ছাত্র সংগঠনের সদস্য বলেও জানায় পুলিশ।

শুক্রবার সকালে নগরীর সিএমপি হেডকোয়ার্টারে আয়োজিত সংবাদ ব্রিফিংয়ে উপ-পুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা) মারুফ হোসেন এসব জানান।

সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (বন্দর) নাজমুল হাসানসহ অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

মারুফ হোসেন বলেন, পুলিশের জঙ্গিবিরোধী চলমান বিশেষ অভিযানে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে নগরীর আগ্রাবাদ পাঠানটুলি, কর্ণফুলি থানার শিকলবাহা এবং জেলার পটিয়া থেকে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়।

তারা হলেন- মো. ফরহাদ আহম্মেদ রিপন (২৭), মো. ইমরান (২৬) ও আহমেদ হোসেন রনি প্রকাশ রুবেল (২১)।

এদের মধ্যে নগরীর ডবলমুরিং থানার আগ্রাবাদ পাঠানটুলী থেকে ফরহাদ, পটিয়া থেকে রনি এবং কর্ণফুলী থানার শিকলবাহা এলাকা থেকে ইমরানকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গ্রেফতার তিনজনই আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সক্রিয় সদস্য হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে চট্টগ্রামে কাজ করছিলেন বলে জানান ডিবির এ কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে রনি নগরীর মুরাদপুরের শ্যামলী আইডিয়াল পলিটেকনিক্যাল ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থী। ফরহাদ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের লেখাপড়া করেছেন। ইমরান এক সময় নাসিরাবাদ পলিটেকনিক্যাল ইনস্টিটিউটের ছাত্র ছিলেন।

ধর্মান্তরিত জঙ্গি মুসয়াব ইবনে উমায়ের তাদের প্রলুব্ধ করে আনসারুল্লাহ বাংলাটিমে যোগদান করান বলে পুলিশের দাবি।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত