টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে সেরা চট্টগ্রাম কলেজ, ৫ প্রতিষ্ঠানের শতভাগ পাশ

চট্টগ্রাম, ১৮ আগস্ট (সিটিজি টাইমস):  চলতি বছর অনুষ্ঠিত এইচএসসি পরীক্ষায় চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডে পাসের হার ও জিপিএ-৫ দুটোই বেড়েছে।

গত বারের তুলনায় ১ দশমিক ১১ শতাংশ বেড়ে এবছর পাসের হার দাঁড়িয়েছে ৬৪ দশমিক ৬০ শতাংশ। ২০১৫ সালে পাসের হার ছিল ৬৩ দশমিক ৪৯ শতাংশ। এবার একইসঙ্গে বেড়েছে জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যাও। এবছর জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ হাজার ২৫৩ জন শিক্ষার্থী। আগের বার এ সংখ্যা ছিল ২ হাজার ১২৯ জনে। ফলে গতবারের তুলনায় জিপিএ-৫ বেশি পেয়েছে ১২৪ জন শিক্ষার্থী।

বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১১টায় এক প্রেস ব্রিফিং-এ এই ফলাফল ঘোষণা করেন চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাহবুব হাসান।

ঘোষিত ফলাফলে, চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডে এবার সর্বোচ্চ ৪৬৯ জন পরীক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ থেকে। ৪৩৪ জন জিপিএ-৫ পেয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে হাজী মোহাম্মদ মহসিন কলেজ। তৃতীয় স্থানে থাকা চট্টগ্রাম ক্যান্টনমেন্ট কলেজ থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২১৭ জন, চতুর্থ স্থানে থাকা চট্টগ্রাম সরকারী কমার্স কলেজ থেকে জিপিএ ৫ পেয়েছে ২০৫ জন। ৫ম অবস্থানে থাকা চট্টগ্রাম সিটি কলেজে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৯৮ জন।

পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাহবুবু হাসান জানান, চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ড থেকে এবারের এইচ এস সিতে সর্বমোট ৮৬ হাজার ৭১৭ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়েছে। এরমধ্যে ছাত্র ৪৩ হাজার ৮৩ জন এবং ছাত্রী ৪৩ হাজার ৬৩৩ জন। সর্বমোট উত্তীর্ণ হয়েছে ৫৬ হাজার ১৬ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ছাত্র ২৭ হাজার ৪২৯ জন এবং ছাত্রী ২৮ হাজার ৫৮৭ জন। জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের মধ্যে ছাত্র ১২৪৪ জন এবং ছাত্রী ১০০৯ জন।

এবার একজনও পাশ করেনি এমন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা নেই। শতভাগ পাশ করেছে এমন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৫টি। এগুলো হলো চট্টগ্রাম ক্যামব্রিয়ান স্কুল অ্যান্ড কলেজ, চট্টগ্রাম ক্যান্টনমেন্ট ইংলিশ স্কুল অ্যান্ড কলেজ, চট্টগ্রাম ইউরিয়া ফার্টিলাইজার কলেজ, ফৌজদার হাট ক্যাডেট কলেজ এবং চট্টগ্রাম মহানগর কলেজ। এর মধ্যে চট্টগ্রাম মহানগর কলেজ থেকে মাত্র একজন শিক্ষার্থী অংশ নিয়ে একজনই পাশ করেছে।

এবার চট্টগ্রামে ছেলেদের তুলনায় মেয়েরা ভাল ফলাফল করেছে। চট্টগ্রামে পরীক্ষার্থীদের মধ্যে ৬৫ দশমিক ৫২ শতাংশ ছাত্রী পাশ করেছে। ছেলেদের ক্ষেত্রে এ হার ৬৩ দশমিক ৬৭ শতাংশ।

এদিকে বিজ্ঞান ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে এবার পাসের হার বাড়লেও মানবিকে তা কমেছে। মানবিকে গত বছর পাসের হার ৫২ দশমিক ৩৩ শতাংশ থাকলেও এবছর তা কমে দাঁড়িয়েছে ৫১ দশমিক ৬২ শতাংশে। এবার বিজ্ঞান বিভাগে পাসের হার ৭৬ দশমিক ৬৬ শতাংশ, যা গতবছর ছিল ৭৩ দশমিক ৮৭ শতাংশ। ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে পাসের হার ৭০ দশমিক ৮৫ শতাংশ। গতবছর যা ছিল ৬৮ দশমিক ৩৬ শতাংশ।

মহানগর বাদে চট্টগ্রাম জেলায় পাশের হার ৬০ দশমিক ২৩ শতাংশ। গতবার এ হার ছিল ৫৮ দশমিক ৭৩ শতাংশ। মহানগর সহ চট্টগ্রাম জেলায় পাশের হার ৬৭ দশমিক ৫৮ শতাংশ। গতবার ছিল ৬৬ দশমিক ২৪ শতাংশ।

গতবারের তুলনায় কমে এবার কক্সবাজার জেলায় পাসের হার দাঁড়িয়েছে ৬৩ দশমিক ৭৪ শতাংশ। গতবার এ হার ছিল ৬৪ দশমিক ৮০ শতাংশ।

তিন পার্বত্য জেলার মধ্যে এবার পাসের হার সবচেয়ে কম রাঙ্গামাটি জেলায়। রাঙ্গামাটিতে এবছর পাসের হার ৪৭ দশমিক ১৪ শতাংশ, যা গতবার ছিল ৪৩ দশমিক ৯১ শতাংশ। খাগড়াছড়িতে পাসের হার ৫১ দশমিক ৭০ শতাংশ, যা গতবার ছিল ৫০ দশমিক ১৬ শতাংশ। বান্দরবানে পাসের হার ৬১ দশমিক ৬৪ শতাংশ যা গতবার ছিল ৫৭ দশমিক ৯৯ শতাংশ।

এবার পাসের হার শূন্য ‌এমন কোন কলেজ নেই। শতভাগ পাস করেছে এমন কলেজের সংখ্যা ৫টি। গতবার এ সংখ্যা ছিল ৪টি। পরীক্ষার সময় অসুদপায় অবলম্বনের দায়ে বহিষ্কার হয় ৪৮ জন শিক্ষার্থী।

মতামত