টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

‘বঙ্গবন্ধুর নামে আত্মপ্রচার চালালে কঠোর ব্যবস্থা’

bangabondhuচট্টগ্রাম, ১৪  আগস্ট (সিটিজি টাইমস): বঙ্গবন্ধুর ছবি ব্যবহার করে আর কোনো আত্মপ্রচার সহ্য করা হবে না বলে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আজ রোববার সচিবালয়ে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আযোজিত আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

বাংলাদেশ সচিবালয় কর্মকর্তা ও কর্মচারী ঐক্য পরিষদ এ সভার আয়োজন করে।

মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর নামে এতো পোস্টার, ব্যানার, বড় বড় বিলবোর্ড দেখলে ভয় হয়। তার প্রচারণার দরকার নাই। বঙ্গবন্ধু গোটা বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠিত। বঙ্গবন্ধুর ছবির সঙ্গে নিজের ছবি ব্যবহার করে আত্মপ্রচার করা হচ্ছে। এতে বঙ্গবন্ধুর আত্মা ‘কষ্ট’ পায়। বঙ্গবন্ধুর ছবির ব্যবহার করে কোনো আত্মপ্রচার সহ্য করা হবে না। অচিরেই এ ব্যাপারে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সুসময় দেখলে বড় ভয় হয়। ৭৫’র ১৪ আগস্ট দেখেছি, আবার ১৫ ই আগস্ট দেখেছি। ১৪ আগস্টের চেনা মুখগুলো ১৫ আগস্ট অচেনা হয়ে গেল। কাউকেই খুঁজে পাওয়া যায়নি। আমরা কতিপয় যুবক নিমতলা বস্তিতে থেকেছি; প্রতিবাদ করেছি। অনেক সত্য আছে, কিন্তু বলা যায় না। ১৪ আগস্টেও যারা ভোগ-বিলাস করেছে, ১৫ আগস্ট তারা কোথায় চলে গেলেন। আজ আবার সারাদেশে এতো আয়োজন, পোস্টার, ব্যানার, ফেস্টুন বিলবোর্ড।

মন্ত্রী আরও বলেন, ৭৫- এ বঙ্গবন্ধু নাম নেওয়াও নিষিদ্ধি ছিল। বেতার, টেলিভিশনেও নাম নেওয়া হতো না। টুঙ্গিপাড়ায় মাত্র ৮ জনকে জানাযায় অংশ নেয়ার অনুমতি দেয়া হয়। কিন্তু খুনিদের হিসাবে বড় ভুল ছিল, সত্য একসময় প্রতিষ্ঠিত হবেই- এটা তারা ভাবতে পারেনি। আজ গোটা বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বে বঙ্গবন্ধু প্রতিষ্ঠিত। খুনিরাই আজ ইতিহাসের পাতা থেকে একে একে নিষিদ্ধ হয়ে যাচ্ছে।

মতামত