টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

“টেলিনর ইয়ুথ ফোরাম ২০১৬” এর আবেদনপত্র গ্রহণ শুরু

TYF_2016_launchচট্টগ্রাম, ১৭ জুলাই (সিটিজি টাইমস):: বিশ্বব্যাপী সমাজের প্রযুক্তিগত রূপান্তরে প্রভাব বিস্তরকারী তরুণ নেতৃত্বের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপনের  জন্য টেলিনর গ্রুপের  আয়োজন টেলিনর ইয়ুথ ফোরাম এ বাংলাদেশ থেকে অংশ নিতে ইচ্ছুকদের নিবন্ধন শুরু হয়েছে।

আজ রাজধানীর একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে গ্রামীণফোনের পক্ষ থেকে এই ফোরামের বিষয়ে ঘোষণা দেওয়া হয়। এ সময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন গ্রামীণফোনের হেড অফ এক্সটার্নাল কমিউনিকেশনস সৈয়দ তালাত কামাল ও গ্রামীণফোনের সেন্টার অব এক্সপারটাইজ, পিপলস অ্যান্ড অর্গানাইজেশন বিভাগের পরিচালক সৈয়দ তানভীর হোসেন।

এ বছর ডিসেম্বর মাসের শেষের দিকে অসলোতে ইয়ুথ ফোরামটি অনুষ্ঠিত হবে। এ ইয়ুথ ফোরামে বিশ্বের ১৩টি দেশ থেকে প্রভাব বিস্তারকারী তরুণেরা অংশগ্রহণ করবেন। প্রযুক্তির উত্থানের এই সময়ে তরুণদের একসঙ্গে কাজ করার একটি মঞ্চ করে দেয়ার মাধ্যমে একটি প্রজন্মের ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করাই এই ইয়ুথ ফোরামের উদ্দেশ্য। এ বছর এ ফোরামের বিষয় নির্ধারিত হয়েছে “শান্তির জন্য প্রযুক্তি”।

প্রথম ধাপে স্থানীয়ভাবে বাছাই প্রক্রিয়ায় শিক্ষার্থী, তরুণ শিক্ষাবিদ ও  উদ্ভাবকেরা এ প্রতিযোগিতার জন্য নিবন্ধন করতে পারবেন। আশা করা হচ্ছে প্রতিযোগীরা কিভাবে ডিজিটাল যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভিন্ন জাতির মানুষের মধ্যে পারষ্পরিক বোঝাপড়া, সমৃদ্ধি এবং প্রকারন্তরে শান্তি ছড়িয়ে দিতে পারে সে বিষয়ে নতুন নতুন ধারণা নিয়ে আসবেন। আগামী ৬ আগস্ট ২০১৬ পর্যন্ত আবেদন গ্রহণ করা হবে। নিচের লিংকের মাধ্যমে আবেদন পত্র জমা দেয়া যাবে।

টেলিনর গ্রুপের ব্যবসা আছে বাংলাদেশসহ এমন ১৩টি দেশের প্রতিটি থেকে দুজন করে প্রতিযোগী নরওয়ে মূল প্রতিযোগিতার জন্য নির্বাচিত হবেন। ২৮ বছর বয়সের নিচে মুক্তমনা ও দৃঢ়চেতা তরুণ, যাদের ভাবনার জায়গাটা এখনো নবীন ও সৃষ্টিশীল, তারা অসলোর মূল প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য মনোনীত হবেন।

এ বছরের সেপ্টেম্বর মাসে একটি সংক্ষিপ্ত বাছাই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে স্থানীয় বিচারকদের চূড়ান্ত রায়ে একটি গালা অনুষ্ঠানে তিন ফাইনালিস্ট নির্ধারণ করা হবে। এ তিন ফাইনালিস্টের মধ্যে থেকে দুজন ডিসেম্বরে অসলোতে যাবেন। সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও টেলিনরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নিয়ে গঠিত একটি আন্তর্জাতিক নির্বাচন প্যানেলের মাধ্যমে তিন ফাইনালিস্ট থেকে দুজন বিজয়ী নির্বাচন করা হবে। যারা মূল প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য বিবেচিত হবেন।

গত বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসা প্রশাসন ইন্সটিটিউট এর শিক্ষার্থী আবরেশমে হক এবং শাবাব রহমান স্থানীয় টেলিনর ইয়ুথ ফোরমে জিতে অসলোতে টেলিনরের মূল প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন। । ইয়ুথ ফোরাম শুধুমাত্র অসলোর মূল প্রতিযোগিতার মধ্যে সীমাবদ্ধ নয় বরং একটি চলমান সংলাপ এবং এবছর থেকে এশিয়ান প্রতিযোগীদের জন্য টেলিনর ইয়ুথ ফোরাম এশিয়া সামিটও অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ সম্পর্কে আরও তথ্য জানা যাবে Youth Forum website থেকে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত