টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

হাটহাজারী কলেজ সরকারি করার দাবি, ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম

sbচট্টগ্রাম, ১৬ জুলাই (সিটিজি টাইমস)::  সরকারকে ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছেন হাটহাজারীর ছাত্রজনতা, এর মধ্যে হাটহাজারী কলেজ সরকারি না করা হলে উত্তর চট্টগ্রাম অচল করার ঘোষণা তাদের। আজ মানববন্ধন ও সড়ক অবরোধে দেড় ঘণ্টা অচল ছিল চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি ও হাটহাজারী-অক্সিজেন মহাসড়ক। থানার ওসি’র আশ্বাসে অবরোধ তুলে নিলেও শর্ত হিসেবে ৭২ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়েছেন ছাত্রজনতা।

আজ বেলা ১১টা থেকে চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি সড়কে মানববন্ধন করেছেন হাটহাজারী কলেজের সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীরা। সাথে ছিল হাটহাজারী সচেতন ছাত্র-জনতা নামে সংগঠিত এলাকাবাসী। এই কর্মসূচিতে একাত্মতা প্রকাশ করেন হাটহাজারী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মাহবুবুল আলম চৌধুরী, হাটহাজারী কলেজ অধ্যক্ষ মীর কপিল উদ্দিন, মেখল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ গিয়াস উদ্দিন, কলেজের শিক্ষকমণ্ডলী, হাটহাজারী কলেজের ভিপি মোঃ শেখ খোরশাদুজ্জমান এবং ছাত্রলীগ, ছাত্রদলসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন। হাটহাজারী কলেজে পড়ুয়া বিভিন্ন শ্রেণির শিক্ষার্থী ও স্থানীয় জনসাধারণ ব্যানার ও ফেস্টুন নিয়ে কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে।

অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, সঞ্চালনায় সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাকেরিয়া চৌধুরী সাগর। সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি ও হাটহাজারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মাহাবুবুল আলম চৌধুরী, বর্তমান ভিপি ভিপি শেখ খোরশেদুজ্জামান, সাংবাদিক মোহাম্মদ আতাউর রহমান মিয়া, ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ গিয়াস উদ্দিন, কাচারী সড়ক বণিক সমিতির সভাপতি মোঃ জসিম উদ্দিন সিকদার, আ.স.ম রফিক, প্রাক্তন ছাত্র আমিরুল ইসলাম ফাহাদ, রেজাউল করিম বাবু, মাসুদুল আলম মঞ্জু, কলেজ শিক্ষার্থী অরুণ চৌধুরী, হেলাল উদ্দিন, ইফতেখার উদ্দিন গালিব, আরাফাত হোসাইন, ইকবাল, রাশেদ, রায়হান উদ্দীন, জিয়াউদ্দীন মিজান, মনছুর, মোরশেদ, খোরশেদ, রহিম, সবুজ, ইব্রাহীম, রিয়াদ, সায়মন, মিজান, নুরুল ইসলাম নোবেল, মোঃ মান্না, সালাউদ্দিন, শফিউল গণি পারভেজ, মোঃ কামাল উদ্দিন, মোঃ নাঈম, নাজিম উদ্দিন, রুবেল, মোঃ জিহাদ, মোনায়েম আহমদ সুহান, সোনিয়া ফিরোজ আঁখি, এলিচ আকতার,ইসমাইল, রিয়া দে, জান্নাতুল ফেরদৌস, মোশারফ হোসেন, শেখ আবদুল কাদের, কলিম উদ্দিন প্রমুখ।

মানববন্ধনের কারণে চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি সড়কে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়। হঠাৎ মানববন্ধন থেকে কলেজের কয়েক হাজার শিক্ষার্থী টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করলে প্রায় তিন কি.মি এলাকাজুড়ে চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি ও হাটহাজারী-অক্সিজেন মহাসড়কে সড়ক স্থবির হয়ে পড়ে। পুলিশ এসে উত্তেজিত শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে শান্ত করে, বেলা সাড়ে বারোটার দিকে যানচলাচল স্বাভাবিক হয়। হাটহাজারী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এলাকার মানুষের দাবি কর্তৃপক্ষের কাছে পৌঁছানোর আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা শর্তসাপেক্ষে অবরোধ তুলে নেন।

বক্তারা বলেন, ”উত্তর চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী হাটহাজারী কলেজ হাটহাজারী উপজেলার প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত। ২০১৫ সালের কলেজ র‌্যাঙ্কিং এ জাতীয়ভাবে কলেজটি ১২৪ তম বিভাগীয় পর্যায়ে ১৪ ও চট্টগ্রাম জেলায় ৭ম অবস্থানে রয়েছে। হাটহাজারী উপজেলা থেকে হাটহাজারী কলেজ জাতীয়করণের জন্য স্থানীয় সাংসদ ও পানি সম্পদ মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ ডিও লেটার দেন। ইতোমধ্যে দেশের ১৯৯টি কলেজ সরকারীকরণের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন। অথচ উত্তর চট্টলার সর্ববৃহৎ ক্যাম্পাস সমৃদ্ধ ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হাটহাজারী কলেজের নাম সেই তালিকায় না থাকায় উপজেলাবাসী মর্মাহত ও হতাশ। দাবি পূরণ না হলে মহাসড়ক অবরোধসহ কঠোর কর্মসূচী দেয়া হবে।”

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত