টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বৌদ্ধমন্দিরে কর্তৃত্ব নিয়ে ভিক্ষুকে জখম

ইমাম খাইর
কক্সবাজার ব্যুরো অফিস

চট্টগ্রাম, ১৩ জুলাই (সিটিজি টাইমস):: কক্সবাজার শহরের উইমাতারা বৌদ্ধ মন্দিরের প্রবীণ বৌদ্ধ ভিক্ষু উ পাঁই দিত্ত¡া ভিক্ষুকে (৭৭) কুপিয়ে-পিঠিয়ে জখম করেছে তার আরেক অনুসারী (ভান্তে)।

১৩ জুলাই বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে কক্সবাজার শহরের বৌদ্ধ মন্দির এলাকার ঐতিহ্যবাহী বৌদ্ধ মন্দির উই মাতারা বৌদ্ধ মন্দিরে এ ঘটনা ঘটে। আহত ভিক্ষুকে গুরুতর অবস্থায় জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তবে, তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় চট্টগ্রামে রেফার দেওয়ার প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে বলে জানা গেছে।

হামলাকারী বৌদ্ধ ভান্তে ময় অং রাখাইন পলাতক রয়েছে। তাকে আটক করার জন্য পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

বৌদ্ধমন্দিরে কর্তৃত্ব নিয়ে হামলার ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা গেছে।

তবে, মাদকের টাকার জন্য এ হামলা হয় বলে অপর সুত্রের দাবী।

বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা জানিয়েছেন, হামলাকারী ময় অং রাখাইন ভান্তের পোষাক পরিধান করলেও সে বর্তমান ভান্তে নেই। বর্তমানে মাদকাসক্ত হয়ে পড়েছে। বৌদ্ধধর্মের আচার অনুষ্ঠানের সাথেও তার সম্পৃক্ততা নেই।

সুত্র জানায়, প্রবীণ বৌদ্ধ ভিক্ষু উ পাঁই দিত্ত¡া’র কাছে নাস্তার অজুহাতে মাদকের জন্য টাকা দাবি করছিল তাদের এক অনুসারী মং ইঁয়া মং (৪০)। তাকে মাদকের জন্য টাকা দিতে না পারায় হামলা করে। গুরুতর আহত অবস্থায় উ পাঁই দিত্ত¡া ভিক্ষুকে উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ডাক্তাররা জানিয়েছেন, ভিক্ষুর শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্মক জখম রয়েছে। বর্তমানে তাকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে। অবস্থা এখনো বুঝা যাচ্ছেনা।

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার শ্যামল কুমার নাথ জানিয়েছেন, হামলাকারী মং ইঁয়া মং একজন বৌদ্ধ ধর্মের অনুসারী এবং ভিক্ষুদের অনুসারী ছিল। হামলার সময় সে ভিক্ষুদের পোষাক পরিহিত ছিল। তার ওপর কেন হামলা করা হলো তা খোঁজ নেয়া হচ্ছে। হামলাকারীকে আটকের চেষ্টা চলছে।

মতামত