টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

টেকনাফে ছোট জা’য়ের ছুরিকাঘাতে বড় জা নিহত

আমান উল্লাহ আমান
টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি

TEKNAFচট্টগ্রাম, ২৩  জুন (সিটিজি টাইমস)::টেকনাফে বড় ভাইয়ের স্ত্রীকে ঘুমন্ত অবস্থায় ছুরিকাঘাতে খুন করেছে ছোট ভাইয়ের স্ত্রী। নিহত নারী হচ্ছে হ্নীলা ইউনিয়নের জাদীমুরা গ্রামের মাওঃ মোঃ ইলিয়াছের স্ত্রী মরিয়ম খাতুন (৩০)।

ঘটনা ঘটেছে ২৩ জুন বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৬ টার দিকে নিহতের নিজ বাড়ীতে। ঘাতক নারী মোঃ ইউনুছের স্ত্রী হাছিনা (২৮) কে জনতা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

জানা যায়, জাদীমুরা গ্রামের মৌলভী আবু তাহেরের বড় ছেলে মুহাম্মদ ইলিয়াছের স্ত্রী মরিয়ম খাতুন (বড় জা) সেহেরি শেষে নিজ কক্ষে ঘুমিয়ে পড়ে। ঘুমন্ত অবস্থায় ছোট ছেলে মুহাম্মদ ইউনুছের স্ত্রী (ছোট জাঁ) হাছিনা (২৮) তার কক্ষে ঢুকে চুরিকাঘাত করে। এতে মরিয়মের শৌর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে ছুরিকাহত গৃহবধুকে উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষনা করেন। তার বুকে ৩টি ছুরির আঘাত রয়েছে। ঘাতক হাছিনাকে জনতা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। এমন ন্যাক্কার জনক ঘটনায় নিহত পরিবারের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। নিহত মরিয়মের ৫ ছেলে-মেয়ে রয়েছে।

এদিকে স্থানীয় মেম্বার মোঃ আলী জানান, বহুদিন ধরে ঘাতক নারী হাছিনা ও তার স্বামী মোঃ ইউনুছের মধ্যে পারিবারিক কলহ সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে উভয়ের মধ্যে বিচ্ছেদ ঘটে। এ সংক্রান্ত বিষয়ে ইউপি পরিষদে বিচারাধীন রয়েছে এবং কয়েকবার বৈঠক চলে। সর্বশেষ গত বুধবার বিচারে চুড়ান্তভাবে বিবাহ বিচ্ছেদ এবং আগামী ৩/৪ দিনের মধ্যে মেয়ের খোরপোষসহ অন্যান্য পাওনাদি মিটিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়া বড় জা কে মারধর করায় ছোট জা’য়ের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছিল। এই বিচ্ছেদের বিষয়টি বড় জা নিহত মরিয়ম ঘটিয়েছে মনে করে ছোট ঝা হাছিনা ক্ষোভের কারনে এ ঘটনাটি ঘটাতে পারে।

টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আবদুল মজিদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি জানান, নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে এবং ঘাতক নারীকে আটক করা হয়েছে। পরে সে অসুস্থ হয়ে পড়লে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।

মতামত