টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে স্যুয়ারেজের নোংরা পানি বাজারজাত

1

ছবিঃ অনুপম বড়ুয়া

চট্টগ্রাম, ২১ জুন (সিটিজি টাইমস)::  চট্টগ্রামে নগরীর আন্দরকিল্লা এলাকায় পানির রিজার্ভারে মরা তেলাপোকা ও স্যুয়ারেজের পানি দ্বারা ১৯ লিটার জারজাত করায় ‘প্রিয়া ড্রিঙ্কিং ওয়াটার’ নামক পানি জারজাত করণ (১৯ লিটার) ফ্যাক্টরির মালিক পাপড়ি রাণী ধর ঝন্টু (স্বামী- বাসু দাস) কে দুইলাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

মঙ্গবার দুপুরে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাহমিলুর রহমান এর নেতৃত্বে এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হয়।

2

ছবিঃ অনুপম বড়ুয়া

ম্যাজিস্ট্রেট তাহমিলুর রহমান বলেন, রিসার্ভারে ওয়াসা, ডিপ টিউওয়েল ও সুয়ারেজের লাইনের একত্রিত সংযোগ এবং পানিতে মৃত তেলাপোকা, স্যুয়ারেজের ময়লা দেখা যায়। এছাড়াও জার ওয়াশিং মেশিন থাকার কথা থাকলেও দেখা যায় সাধারন ডিটারজেন্ট দিয়ে হাতে পরিষ্কার করা হয় পূর্বে ব্যবহৃত জারগুলো। পানি রিফিলি হবার কথা অটোমেটিক ফিলিং মেশিনে কিন্তু তাও অকার্যকর অবস্থায় দেখতে পাওয়া যায়। জীবাণু মুক্তকরণের জন্য কোন ইউভি (অতিবেগুনী রশ্মি) এর কোন ব্যবস্থাও সেখানে ছিল না। পানির জারগুলোতে কোন উৎপাদন ও মেয়াদ উত্তীর্ণ এর তারিখ সম্বলিত কোন ট্যাগ বা সীল কোন কিছুই খুজে পাওয়া যায়নি। এছাড়া কোম্পানির বিএসটিআই এর লাইসেন্স ছিলো না।

এসব কারণে ফ্যাক্টরির মালিক পাপড়ি রাণী ধর ঝন্টু কেদুইলাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

3

ছবিঃ অনুপম বড়ুয়া

ম্যাজিষ্ট্রেট তাহমিলুর রহমান আরো বলেন, চট্টগ্রামে ২৯ টি সম্পূর্ণ অবৈধ ও লাইসেন্সবিহীন ড্রিংকিং ওয়াটার কোম্পানি রয়েছে। এমনকি লাইসেন্স প্রাপ্ত অনেক কোম্পানির বিরুদ্ধে সরাসরি ওয়াসার পানি ব্যবহার করে বোতলজাত করার অভিযোগ রয়েছে। জেলা প্রশাসন এ বিষয়গুলো খতিয়ে দেখছে। অভিযান অব্যাহত থাকবে।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসনের শিক্ষনবিস নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাসান বিন আলী, বিএসটিআই কর্মকর্তা জনাব মোঃ সাফায়েত হোসেন, ক্যাবের সদস্য জান্নাতুল ফেরদৌস, তৌহিদুল ইসলাম এবং আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় সহযোগিতায় ছিল পুলিশ ও ব্যাটালিয়ন আনসার।

মতামত