টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চোরাই গাড়ী চক্রের কিং মেহেদী আটক : টেকনাফে ৭টি গাড়ী জব্দ

আমান উল্লাহ আমান
টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম, ০৮ জুন (সিটিজি টাইমস):: চোরাই গাড়ী ক্রয়-বিক্রয় চক্রের কিং ও ইয়াবা গডফাদার টেকনাফের মেহেদী হাসান মেহেদী অবশেষে গোয়েন্দা পুলিশের জালে আটকা পড়েছে। ঢাকা মেট্রোপলিটন গোয়েন্দা পুলিশের একটি টিম দীর্ঘ নজরদারী শেষে গত মঙ্গলাবার বিকেলে তাকে টেকনাফর একটি দোকান থেকে আটক করে। সে টেকনাফ পৌরসভার নাইটং পাড়ার আব্দুল গফুরের ছেলে। পরে তার দেওয়া তথ্য মতে ৭ টি গাড়ী জব্দ করা হয়। জব্দকৃত গাড়ীর মধ্যে একটি কার (ঢাকা মেট্রো-গ ১৪-৬১১৬) ও ৬ টি নোহা মাইক্রো । গাড়ীসহ আটক মেহেদীকে বুধবার বিকেলে ঢাকার উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া হয়। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, আটক মেহেদী টেকনাফের শীর্ষ ইয়াবা ব্যবসায়ী। তার ইয়াবা নেটওর্য়াক গতিশীল করতে সখ্যতা গড়ে তোলে রাজধানীসহ দেশের চোরাই গাড়ী চক্রের সাথে। ইয়াবার বদলে চোরাই গাড়ী দিয়ে যায় চক্রটি। মেহেদী এসব চোরাই গাড়ী টেকনাফে বসে বিক্রয় করতে থাকে। এসব চোরাই গাড়ী দিয়ে টেকনাফ থেকে দেশের বিভিন্ন স্থানে ইয়াবা পাচার করে থাকে এরা। একসময় ইয়াবাসহ মেহেদী আটক হলেও পরে জামিনে বের হয়ে আসে সে। ইয়াবা পাচারের চেয়ে মেহেদীর পরিচিতি বেড়ে যায় গাড়ী আমদানী কারক হিসেবে। মেহেদী যে চোরাই গাড়ীর আমদানীকারক তা সংশ্লিষ্টরা জানলেও এতোদিন ছিলো ধরাছোঁয়ার বাইরে। গত টেকনাফ পৌরসভা নির্বাচনে ১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্ব›িদ্ধতাও করে সে। অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার নিশাত রহমান মিথুন জানান, চোরাই গাড়ী চক্রের সদস্য মেহেদী হাসানকে ৭টি গাড়ীসহ আটক করা হয়েছে। ঢাকায় পৌঁছে তার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা রুজু কর হবে।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি আব্দুল মজিদ জানান, বেশ কিছুদিন থেকে ইয়াবা পাচারসহ বিভিন্ন অভিযোগে মেহেদীর ব্যাপারে খোজঁখবর নেওয়া হচ্ছে। এ ফাকেঁ ঢাকা মেট্রোপলিটন গোয়েন্দা পুলিশের একটি টিম তাকে চোরাই গাড়ীসহ আটক করে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত