টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে আল-আরাফার ৫ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে পরোয়ানা

চট্টগ্রাম, ২৫ মে (সিটিজি টাইমস):: চট্টগ্রামে গ্রাহকের দায়ের করা মামলায় আল-আরাফা ইসলামী ব্যাংকের পাঁচ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

বুধবার মহানগর হাকিম মো. নাজমুল হাসান ঋণগ্রহীতা ব্যবসায়ী মীর মঈনুল হাসান চৌধুরীর দায়ের করা মামলায় পুলিশের বিশেষায়িত তদন্ত সংস্থা পুলিশ ব্যুরো ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) তদন্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে আদালত এ আদেশ দেন।

গ্রেফতারি পরোয়ানা জারিকরা অভিযুক্তরা ৫ কর্মকর্তা হলেন— ব্যাংকটির আগ্রাবাদ শাখা ব্যবস্থাপক আকতার কামাল, অপারেশন ম্যানেজার নাহিদ হোসেন, বিনিয়োগ শাখার প্রধান ইমতিয়াজ আলম, ব্যাংক কর্মকর্তা মঈন উদ্দিন আহমেদ ও আক্তার হোসেন।

বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আবছার উর রশীদ জানান, গত বছরের ১৯ অক্টোবর ওই শাখার ঋণগ্রহীতা নগরীর এনায়েত বাজারস্থ ফেমাস স্যানিটারির মালিক ব্যবসায়ী মীর মঈনুল হাসান চৌধুরী তাদের বিরুদ্ধে একটি সিআর মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় তিনি অভিযোগ করেন, ২০১১ সালে চট্টগ্রাম ও নারায়নগঞ্জের দুটি জায়গা মর্টগেজ দিয়ে আল-আরাফা ইসলামী ব্যাংকের আগ্রাবাদ শাখা থেকে ৩৫ লাখ টাকার ঋণ নেন।

ঋণ মঞ্জুরীর সময় বিবাদীগণ তার কাছ থেকে স্বাক্ষরসহ ৮টি অলিখিত চেকও গ্রহণ করেন। বাদী ঋণ পরিশোধে ব্যর্থ হলে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ২০১৪ সালের ১৫ জুলাই ঋণ পরিশোধের চূড়ান্ত তাগাদাপত্রে দিয়ে বাদীর নিকট সুদাসলসহ ৩৬ লাখ ৫৮ হাজার টাকা দাবি করেন।

তাগাদাপত্র পাওয়ার পর ২ লাখ ১৮ হাজার টাকাও পরিশোধ করেন তিনি। এরপরও বিবাদীগণ বাদীর স্বাক্ষরযুক্ত অলিখিত ৮টি চেকের মধ্যে ২টি চেক ব্যবহার করে প্রত্যেক চেকে ৩৫ লাখ টাকা লিখে বাদীর বিরুদ্ধে আদালতে চেক ডিসঅনার মামলা দায়ের করেন।

একই সাথে ৭৭ লাখ ৩২ হাজার ১৩২ টাকা ৬০ পয়সা দাবি করে অর্থ ঋণ আদালতে বাদীর বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা দায়ের করে তারা। ফলে জালিয়াতি, প্রতারণা ও বিশ্বাস ভঙ্গ করে বাদীর স্বাক্ষরযুক্ত অলিখিত চেক ব্যবহার করে ৭০ লাখ টাকা ও ৭৭ লাখ ৩২ হাজার ১৩২ টাকা ৬০ পয়সা দাবি করে অর্থ ঋণ আদালতে বাদীর বিরুদ্ধে মামলা করার অভিযোগে বাদী ব্যবসায়ী মঈনুল আল-আরাফা ইসলামী ব্যাংকের আগ্রাবাদ শাখার কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে আদালতে পাল্টা মামলা দায়ের করেন।

আদালত মামলাটি গ্রহণ করে পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দেন। দীর্ঘ তদন্ত শেষে অভিযোগের সত্যতা পেয়ে বিবাদীদের বিরুদ্ধে পিবিআই আদালতে তদন্ত রিপোর্ট দাখিল করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে আদালত আজ ৫ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পারোয়ানা জারি করেন।

মতামত