টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

সাতকানিয়ার ১৭ ইউনিয়নের ১২টিতেই আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী

বিদ্রোহীদের দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ করার নির্দেশ

শহীদ ইসলাম বাবর
দক্ষিণ চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম, ১৮  মে (সিটিজি টাইমস):  দক্ষিণ চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার ১৭ ইউনিয়নে আগামী ৪ জুন অনুষ্ঠিতব্য ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ১৭ ইউনিয়নের ১২টিতেই আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে। বিএনপি কিংবা অন্যান্য দল থেকে শক্তিশালী প্রার্থী না দেওয়ায় আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থীদের বিজয়ের যথেষ্ট সম্ভাবনা থাকলেও শুধুমাত্র বিদ্রোহী প্রার্থীদের কারনেই নৌকার ভরাডুবি হতে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে। দলীয় মনোনয়ন প্রাপ্ত একাধিক প্রার্থীর আশা তারা (বিদ্রোহীরা) তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যহার করে নিয়ে দলের মনোনীত প্রার্থীদের পক্ষে কাজ করবে। আওয়ামীলীগের একাধিক নেতার সাথে আলাপ করে জানা যায়, বিদ্রোহী প্রার্থীদের ইতিমধ্যে স্ব-স্ব মনোনয়নপত্র প্রত্যহার করে দলের মনোনীত প্রার্থীদের পক্ষে কাজ করার জন্য লিখিত নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নির্দেশ অমান্য করলে দ্রুততম সময়ের মধ্যে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে বিদ্রোহীদের সাফ জানিয়ে দিয়েছে দলটি।


সূত্রে প্রকাশ, প্রথম বারের মতো দলীয় প্রতীকে অনুষ্ঠিতব্য এ নির্বাচনে কয়েক ধাপে বাছাই করে প্রার্থী মনোনয়ন দেয় দলটি। ১৭ টি ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থীরা হলেন, যথাক্রমে চরতিতে অধ্যাপক প্রদীপ কুমার চৌধুরী, খাগরিয়ায় মোহাম্মদ আকতার হোসেন, নলুয়ায় বর্তমান চেয়ারম্যান তছলিমা আকতার, কাঞ্চনায় বর্তমান চেয়ারম্যান রমজান আলী, এঁওচিয়ায় নজরুল ইসলাম মানিক, মাদার্শায় আবু নঈম মো. সেলিম, সোনাকানিয়ায় বর্তমান চেয়ারম্যান হাজী নুর আহমদ, সাতকানিয়া সদরে হারুনুর রশিদ, পশ্চিম ঢেমশায় আবু তাহের জিন্নাহ, ঢেমশায় রিদুয়ানুল হক, কেঁওচিয়ায় মোঃ ওসমান আলী, আমিলাইষে বর্তমান চেয়ারম্যান সারওয়ার উদ্দিন চৌধুরী, ছদাহায় বর্তমান চেয়ারম্যান মোসাদ হোসেন চৌধুরী, বাজালিয়ায় তাপস দত্ত, পুরানগড়ে আ ফ ম মাহাবুবুল হক সিকদার, ধর্মপুরে বর্তমান চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী ও কালিয়াইশে হাফেজ আহমদ। এর বাইরে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে চরতিতে মমতাজ উদ্দিন আহমদ, খাগরিয়ায় বর্তমান চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন, কাঞ্চনায় মিজানুর রহমান মারুফ, এঁওচিয়ায় নুরুল হক, মাদার্শায় রিদুয়ানুল হক, সোনাকানিয়ায় মাষ্টার আবু তাহের, সাতকানিয়া সদরে নেজাম উদ্দিন, আজিজুল হক, কেঁওচিয়ায় মনির আহমদ, আবু ছালেহ শান, মাহাবুর রহমান, বাজালিয়ায় নুরুল আমিন সিকদার, আমিলাইষে জামাল উদ্দিন ও এস এম হারুনুর রশিদ, পুরানগড়ে রাশেদুল করিম চৌধুরী এবং ধর্মপুরে মোহাম্মদ আকতার হোসেন। দলের বিরুদ্ধে বিদ্রোহের বিষয়ে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান বলেন“ বিদ্রোহী প্রার্থীদের সাথে আমরা বৈঠক করেছি, লিখিত ভাবে জানিয়েছি যে, তারা যদি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে স্ব-স্ব মনোনয়নপত্র প্রত্যহার করে দলের মনোনীত প্রার্থীদের পক্ষে কাজ শুরু না করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


একই বিষয়ে সাতকানিয়া আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কুতুব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, বেশ কয়েকটি ইউনিয়নে বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে। দলের পক্ষ থেকে তাদের সরে গিয়ে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ করার জন্য বলা হয়েছে। তাছাড়া তারা (বিদ্রোহী প্রার্থীরা) দলের প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করবেনা বলে শপথ করেছে। আশা করি যথা সময়ে তারা নিজেদের প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে দলীয় প্রার্থীর পক্ষ কাজ শুরু করবে। আর তা না করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত