টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বার্সেলোনা চ্যাম্পিয়ন

spচট্টগ্রাম, ১৪ মে (সিটিজি টাইমস):  হিসাবটা ছিল খুবই সহজ। গ্রানাডার মাঠে গিয়ে জিতলেই চ্যাম্পিয়ন। তবে হোঁচট খেলে শিরোপা জয় পড়ে যেতো অসম্ভব। শেষ পর্যন্ত কোন অনিশ্চয়তাই আর ভর করেনি মেসি-নেইমার-সুয়ারেজদের ওপর। উরুগুইয়ান তারকা লুইস সুয়ারেজের অসাধারণ এক হ্যাটট্রিক। শেষ পর্যন্ত গ্রানডাকে ৩-০ গোলে হারিয়ে ২৪তমবারেরমত স্প্যানিশ লা লিগার শিরোপা জিতে নিল বার্সেলোনা।

অপরদিকে দেপোর্তিভো লা করুনাকে ২-০ গোলে হারালেও কোন লাভ হয়নি রিয়াল মাদ্রিদের। লা লিগায় দ্বিতীয়স্থান নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হলো তাদের।

ফলে আরেকবার অপেক্ষার পালা দীর্ঘায়িত হলো রিয়াল মাদ্রিদের। সেই ২০১১-১২ মৌসুমে লা লিগা জিতেছিল ক্লাবটি। এরপর ঘরোয়া ফুটবলের সবচেয়ে মর্যাদাবান এই লড়াইয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়া হয়নি তাদের। গত মৌসুমেও মাত্র ২ পয়েন্ট ব্যবধানে রানার্স-আপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছিল। এবার ১ পয়েন্ট পিছিয়ে থেকে মৌসুম শেষ করল তারা।

অবশ্য লা লিগার ইতিহাসে সবচেয়ে সফল দল রিয়াল মাদ্রিদ। এখন পর্যন্ত ৩২ বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে তারা। রানার্স-আপ হয়েছে ২৩ বার। বিপরীতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সাফল্য পাওয়া বার্সেলোনা এ নিয়ে ২৪ বার চ্যাম্পিয়ন ও ২৪ বার রানার্স হলো।

গত মৌসুমে ট্রেবল জিতেছিল বার্সেলোনা। কিন্তু এই মৌসুমে সেমিফাইনালের আগে ইউরোপের শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই থেকে বিদায় নিয়েছে। তবে লা লিগার শিরোপা ধরে রাখায় কষ্টটা কমেছে। আর আগামী ২২ মে কোপা ডেল রের ফাইনাল ম্যাচে তারা সেভিয়ার মুখোমুখি হবে। সেই ম্যাচ জিততে পারলে ডাবল শিরোপা জেতা হবে মেসিদের।

শনিবার গ্রানাডার মাঠে সফরকারী হিসেবে লিগে মৌসুমের শেষ ম্যাচটি খেলতে নামেন মেসি-সুয়ারেজে-নেইমাররা। তিন তারকাকে আটকাতে অনেক ফন্দি করেই মাঠে নেমেছিল স্বাগতিকরা। কিন্তু ম্যাচের ২২ মিনিটে সুয়ারেজকে আটকে রাখতে পারলো না। জর্দি আলবার ক্রস থেকে পাওয়া বল সহজেই জালে জড়িয়ে দেন উরুগুয়ের তারকা।

বিরতির আগেই জোড়া গোল পূর্ণ করেন সাবেক লিভারপুলের স্ট্রাইকার। সেই সঙ্গে দলের লিডকে ডাবলে নিয়ে যান তিনি। খেলার ৩৮ মিনিটে মাঠের প্রায় বাইরে চলে যাওয়া একটি বল ক্রস করেন দানি আলভেস। গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে অবিশ্বাস্যভাবে সেই বল জালে জড়িয়ে দেন সুয়ারেজ।

অবশ্য বিরতির পর গোলের দেখা পাচ্ছিল না কোনো দলই। কিন্তু মৌসুমের শেষ ম্যাচে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেই মাঠ ছাড়লেন সুয়ারেজ। খেলার ৮৬ মিনিটে নেইমারকে বল বাড়িয়ে দেন মেসি। সেটি তিনি ক্রস দেন সুয়ারেজকে। সেই বল জালে জড়াতে ভুল করেননি সাবেক লিভারপুলের তারকা। লা লিগায় এই মৌসুমে ৪০ গোল করলেন তিনি।

এদিকে দেপোর্তিভো লা করুনার মাঠে জোড়া গোল করেছেন রিয়াল মাদ্রিদের তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। খেলার ৭ মিনিটেই গোলের সূচনা করেন তিনি। ২৫ মিনিটে দলের লিডকে ডাবলে নিয়ে যান এই তারকা। এটি লা লিগায় এবারের মৌসুমে তার ৩৫তম গোল।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত