টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

সারাদেশে বজ্রপাতে নিহত ৩৫

চট্টগ্রাম, ১২ মে (সিটিজি টাইমস):: রাজধানী ঢাকাসহ দেশের ১৪ জেলায় বজ্রপাতে প্রায় ৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।বজ্রপাতে আহত হয়ে বেশ কয়েকজন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত প্রচণ্ড ঝড় বৃষ্টিতে বজ্রপাতের এসব ঘটনা ঘটে।

এদের মধ্যে বজ্রপাতে ঢাকায় দুইজন, রাজশাহীতে তিনজন, গাজীপুরে দুইজন, হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে একজন নিহত হয়েছেন।

ঢাকা: রাজধানীর ডেমরার কাঠেরপুল এলাকায় ফুটবল খেলার সময় বজ্রপাতে দুই ছাত্র নিহত হয়েছে। এ সময় আরও একজন আহত হয়েছে।

বিকাল পাঁচটার দিকে কোনাপাড়ার কাঠেরপুল এলাকার কনকর্ড বালুর মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- আহসান উল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের শিক্ষার্থী রুম্মান হাসান লিঙ্কন (২১) ও পলিটেকনিক্যালের শিক্ষার্থী সাহেদ ওরফে সোহাগ (২১)। আহতের নাম রায়আন (১৮)।

রাজশাহী: বৃহস্পতিবার বেলা ৩টার দিকে উপজেলার ঘাষিগ্রাম ইউনিয়নে বজ্রপাতে তিন জনের মৃত্যু হয়। আহত হয় ৪জন।

নিহতরা হলেন- আতা নারায়ণপুর গ্রামের শামসুদ্দিনের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (২), হাততৈড় গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে আব্দুল আজিজ (৫০) এবং ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের সৈত চন্দ্র (৩০)।

আহতরা হলেন-উপজেলার পুল্লাকুড়ি গ্রামের জালাল উদ্দিন (৪০), বারইপাড়া গ্রামের আব্দুর রহিমের স্ত্রী আলিমন বেগম (৭০) এবং মোল্লাডাইং গ্রামের সমির উদ্দিনের স্ত্রী জাহানারা বেগম (২৮)। তাদের উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গাজীপুর: গাজীপুরের কাপাসিয়ায় বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার সাতানা গ্রামের সানাউল্লাহ বেপারীর ছেলে মো. সাত্তার আলী (২৬) এবং কাপাসিয়ার খিরাটি গ্রামের কাজল মিয়ার স্ত্রী রুবিনা (৪০)।

কাপাসিয়া থানার উপ-পরিদর্শক মো. শাহজাহান জানান, দিনমজুর মো. সাত্তার আলী কাপাসিয়া উপজেলার উত্তরখামের গ্রামের আব্দুর রশীদের জমিতে ধান কাটছিল। এসময় বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

অপরদিকে, গৃহবধূ রুবিনা মাঠ থেকে গরু নিয়ে ফেরার পথে বজ্রপাতের কবলে পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

হবিগঞ্জ: বানিয়াচং উপজেলার প্রতাপপুর গ্রামে বজ্রপাতে হাবিব মিয়া (২৫) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

বিকাল ৪টায় প্রতাপপুর গ্রামের পাশের হাওরে এ মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। নিহত হাবিব ওই গ্রামের শেখ তাজুল মিয়ার ছেলে। বাড়ির পাশের হাওরে বোরো ধান কাটার সময় এ দুর্ঘটনার শিকার হয় হাবিব।

মতামত