টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

মিরসরাই-ফটিকছড়ি ঝুকিপূর্ণ সংযোগ সড়ককের সংস্কার অজ্ঞাত কারণে বন্ধ, ভোগান্তি চরমে

এম মাঈন উদ্দিন
মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি 

Mirsarai-Sarak-Photoচট্টগ্রাম, ০৬ মে (সিটিজি টাইমস)::  দীর্ঘদিনের অবহেলিত মিরসরাই- ফটিকছড়ি সংযোগ সড়কটির উন্নয়ন কাজ অবশেষে শুরু হবার পর ও রহস্যজনক কারনে আবার মুখ থুবড়ে পড়ে আছে সড়কের উন্নয়নের কাজ। অথচ এখন জনপ্রতিনিধি ও সড়ক প্রশাসনের কাছে গনদাবি উঠছে উত্তর চট্টগ্রামের উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে মিরসরাই- ফটিকছড়ি এই সংযোগ সড়কটিকে হতে পারে নিরাপদ ও ঝুঁকিবিহীন চারলেন।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সম্মুখ অংশ থেকে শুরু হওয়া এই উন্নয়ন কাজের কিছু অংশে ঢালাই এর পর থেকে ইট পাথর পাথরের বড় বড় খন্ড প্রলেপ বিহীন রাস্তার উপর পড়ে থাকায় সিএনজি, পিকআপ, কার- মাইক্রোর চাকা পাংচার হচ্ছে একদিকে। অপর দিকে সড়কে চলাচলের গাড়ির চাকা থেকে সটকে গিয়ে অনেক মানুষের গায়ে পড়ছে ইট পাথরের টুকরো। আর এভাবে পড়ে আছে গত কয়েক মাস ধরেই।

এই বিষয়ে মিরসরাই পৌরসভার মেয়র গিয়াস উদ্দিন বলেন, মহাসড়ক থেকে রেল লাইন পর্যন্ত এই অংশের প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে এনডিএসপি। তিনি বলেন আমি ব্যক্তিগতভাবে জানি এই প্রকল্পের ঠিকাদার রাকা ইন্টারন্যাশনাল এর ঋণের কবলে পড়ায় প্রকল্প বাস্তবায়নের ধীর গতিতে বাধার মুখে পড়েছে ওরা। তবে তবুও আমার পৌরসভার পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার আশ্বাসে শীঘ্রই ঠিকাদার কাজ শুরু করবে বলে আশ্বাস দিয়েছে।

মেয়র গিয়াস উদ্দিন আরো বলেন শুধু এতোটুকুন উন্নয়ন নয় মিরসরাই সদর হয়ে এই ফটিকছড়ি সংযোগ সড়কটির একটি অন্যতম বৈশিষ্ট হলো এই সড়ক দিয়ে পাহাড়ী ২০ কিলোমিটার পুরো সড়ক জুড়ে কোন ব্রীজ নেই। আর তাই মিরসরাই হয়ে ফেনী চট্টগ্রামের সাথে পার্বত্য অঞ্চল সহ রাউজান, ফটিকছড়ি, হাটহাজারী, মানিকছড়ি সহ বিভিন্ন উপজেলার একটি নিরাপদ চারলেন রুট হতে পারে এই সড়ক। আর এর জন্য গৃহায়নমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন সহ সড়ক ও সেতুমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষনের দাবী জানান তিনি।

এদিকে আবার রেল লাইন থেকে ফটিকছড়ির নারায়নহাটের অপর অংশের প্রায় ১০ কিলোমিটার সড়ক উন্নয়ন কাজ ও স¤প্রতি শুরু হবার কথা। সড়ক ও জনপথ বিভাগের অধিনে ১১ কোটি টাকা বরাদ্ধ দেয়া কতৃপক্ষের নির্বাহী প্রকেশৈলী রাশেদুল আলম এর কাছে এই বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন এই প্রকল্পের কাজ শীঘ্রই শুরু হবে। পাহাড়ী এলাকা বলে প্রকল্প মেয়াদ ১৮ মাস থাকায় ঠিকাদার ধীর গতিতে কাজ শুরু করছে। তবে ইতিমধ্যে কালভার্ট গুলো সহ সড়কের নির্মান কাজ শুরু হবে।

উল্লেখ্য পৌরসদর এর বুক চিরে উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া জনগুরত্বপূর্ণ মিরসরাই-ফটিকছড়ি সংযোগ সড়কটি স্বাধীনতার চলি­শ বছর পার হতে যাচ্ছে কিন্তু পাহাড়ী সর্পিল আঁকাবাঁকা ২০ কিলোমিটার দীর্ঘ দুই উপজেলার এই গুরুত্ব বহনকারী ফটিকছড়ির নারায়নহাট থেকে মিরসরাই সদর এর সংযোগ সড়কটির কোন উন্নয়ন হয়নি। অবশেষে বর্তমান সরকারের সময়ে এই সড়ক উন্নয়ন এর প্রকল্প হাতে নেয়ার পর নারায়নহাট থেকে ফটিকছড়ি অংশের প্রায় ১০ কিলোমিটার এর কাজ শেষ প্রায়। পক্ষান্তরে মিরসরাই অংশের কাজ এখনো অবশিষ্ট রয়ে গেছে এখনো। বর্তমানে এই অংশের উন্নয়ন কাজ শুরু হবার সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবার পর এলাকাবাসী আশা করছে আর দূর্ভোগ বা ভোগান্তি নয়। এখন একটু স্বস্তি পেতে চায় মিরসরাই-নারায়নহাট রুটের সকল সুফলভোগীরা।

মতামত