টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

কান্না থামছে না নোমানের পরিবারে 

আব্বাস হোসাইন আফতাব
রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম, ২৪ এপ্রিল (সিটিজি টাইমস) : মেধাবী ছাত্র নোমানের পরিবারে কান্না থামছে না। বেড়াতে গিয়ে নদীতে ডুবে মারা যাওয়া নোমানের পরিবার কিছুতে মানতে পারছেনা তার মৃত্যু। নোমানের পরিবার, বন্ধুবান্ধব ও স্বজনরা শনিবার সন্ধ্যায় অশ্র“সিক্ত চোখে বিদায় জানায় তাকে।

নোমানকে হারিয়ে নির্বাক তার পিতা মাতা । নিজ বাড়ি রাঙ্গুনিয়ার সরফভাটায় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয় নোমানকে।

নোমানের ভাই মুরাদ চৌধুরী জানান, ছোটবেলা থেকে নোমান খুবই মেধাবী ছিল। সদালাপী ও চঞ্চল নোমান উচ্চ শিক্ষা অর্জন করে সবার মুখ উজ্জ্বল করবে এটা সবার কাম্য ছিল। নোমানের অকাল চলে যাওয়া কেউ মেনে নিতে পারছে না।

নোমানের বন্ধু আতাউল মোস্তফা তোহা জানান, বৃহষ্পতিবার লাঙ্গলমোড়া এলাকায় বন্ধুর বাড়িতে বিয়ে অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত হয়ে গিয়েছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের কয়েকজন ছাত্র। শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে নোমানসহ ৫ বন্ধু হালদা নদীতে গোসল করতে নামে। এই সময় নদীতে সাঁতার কাটার এক পর্যায়ে নোমান নদীর স্রোতের টানে ডুবে যায়। পরদিন শনিবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে নাঙ্গলমোড়া এলাকার হালদা নদী থেকে হাটহাজারী ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা নোমানের মৃতদেহ উদ্ধার করে। নোমানের বাড়ি রাঙ্গুনিয়া উপজেলার সরফভাটা গ্রামে হলেও চট্টগ্রাম নগরীর চান্দগাঁওয়ে ভাড়া বাসায় থাকতেন তারা। তার পিতার নাম ওমর চৌধুরী।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত