টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে ছাত্রীরাই চিহ্নিত করল যৌন হয়রানির ১৬২ স্পট

untitledচট্টগ্রাম, ২৪  এপ্রিল (সিটিজি টাইমস) :  চট্টগ্রাম মহানগরীর ১১টি বিদ্যালয়ে ১৬২টি যৌন হয়রানির স্পট চিহ্নিত করা হয়েছে।

চিহ্নিত স্পটগুলোর মধ্যে রয়েছে_ পতেঙ্গা সিটি করপোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ২৩টি, ডা. খাস্তগীর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ২০টি, রামপুর সিটি করপোরেশন উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৬টি, কলকাকলি উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৫টি, কদম মোবারক এম ওয়াই উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৪টি, চট্টগ্রাম পুলিশ ইনস্টিটিউশনে ১৩টি, আলহাজ্ব আনোয়ারা বেগম বিদ্যালয়ে ১৩টি, কাপাসগোলা সিটি করপোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৩টি, আগ্রাবাদ বালিকা বিদ্যালয়ে ১৩টি, কাজেম আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজে ১২টি এবং বাংলাদেশ ব্যাংক কলোনি উচ্চ বিদ্যালয়ে ১০টি।

এসব বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত ছাত্রীরা বাসা থেকে স্কুলে যাতায়াতের সময় বখাটেদের দ্বারা হয়রানি হওয়ার এসব স্পট চিহ্নিত করেছে।

ছাত্রীরা এসব স্পটের নাম উল্লেখ করে তৈরি করেছে ম্যাপও। ইতিমধ্যে তারা স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে তা জমা দিয়েছে।

চিহ্নিত স্পটগুলো নিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে মাঠে নামছে নগর পুলিশ, নির্মূলকরণ নেটওয়ার্ক, স্কুল কর্তৃপক্ষ, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, অভিভাবক ও প্রশাসন। এদিকে চিহ্নিত স্পটগুলোতে বাড়ানো হয়েছে মনিটরিং কার্যক্রম।

প্রসঙ্গত, মেয়েদের জন্য নিরাপদ নাগরিকত্ব (মেজনিন) কর্মসূচির আওতায় স্কুলপড়ূয়া ছাত্রীদের সহযোগিতায় ব্র্যাক চট্টগ্রামের উদ্যোগে যৌন হয়রানিপ্রবণ এলাকা চিহ্নিত ম্যাপ ও ওয়াল ম্যাগাজিন তৈরির কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়।

কর্মসূচিতে চট্টগ্রাম মহানগরীর ৪৪টি মাধ্যমিক স্কুলের ১৪ হাজার শিক্ষার্থীকে আওতাভুক্ত করা হয়। প্রথম ধাপে এসব স্কুলের মধ্যে ১১টি স্কুলের শিক্ষার্থীরা যৌন হয়রানিপ্রবণ ১৬২টি এলাকা চিহ্নিত করেছে। অন্য স্কুলগুলোতেও চিহ্নিতকরণের কাজ ধাপে ধাপে সম্পন্ন করা হবে।

এ বিষয়ে নগর পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) দেবদাস ভট্টাচার্য বলেন, ‘নগর পুলিশের পক্ষ থেকে যৌন হয়রানির সমস্যা সমাধানে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। ছাত্রীদের চিহ্নিত স্পটগুলোতে বিশেষভাবে নজরদারি করা হবে। সেসঙ্গে এসব স্পটে বাড়তি ফোর্স মোতায়েন করে মনিটরিং ব্যবস্থাও জোরদার করা হবে।’

যৌন হয়রানি নির্মূলকরণ নেটওয়ার্ক চট্টগ্রামের আহ্বায়ক জেসমিন সুলতানা পারু বলেন, ‘চিহ্নিত স্পটগুলো সম্পর্কে ছাত্রীদের কাছ থেকে বক্তব্য নিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। এ সমস্যা সমাধানে স্কুল কমিটি, অভিভাবক, সমাজকর্মী, নারীনেত্রী ও ভুক্তভোগী ছাত্রীদের সঙ্গে কয়েক দফা আলোচনাও করা হয়েছে।’

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত