টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামের ৩০ ইউপিতে ভোট গ্রহণ চলছে

চট্টগ্রাম, ৩১ মার্চ (সিটিজি টাইমস) :: দ্বিতীয় দফায় চট্টগ্রামের তিনটি উপজেলায় ৩০ ইউনিয়ন পরিষদের ভোট শুরু হয়েছে। ভোটের আগে বিভিন্ন স্থানে সহিংসতা বৃদ্ধি পাওয়ায় ভোটারদের মধ্যেও রয়েছে নানা শঙ্কা। এরপরও নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে নেয়া হয়নি বাড়তি কোনো নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) সকাল ৮টায় ভোট শুরু হয়েছে। বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ চলবে।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, ভোটগ্রহণের আগে থেকেই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে নির্বাচনী পরিবেশ। প্রতিপক্ষের উপর হামলা, বাড়ি-ঘর ভাঙচুর, প্রচারে বাধা দেয়াসহ সহিংস ঘটনা অব্যাহত রয়েছে। একই সঙ্গে চলছে আচরণ বিধি লংঘনের হিড়িক। কোথাও কোথাও প্রার্থী ও ভোটারদের এলাকা ছাড়তে বাধ্য করায় শেষ মুহূর্তে ইসিতে জমা হয়েছে অসংখ্য অভিযোগ। এসব ঘটনায় ব্যবস্থা নিতে স্থানীয় প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও রিটার্নিং অফিসারকে ‘কঠোর’ ব্যবস্থা নিতে শুধু কাগজে-কলমে নির্দেশনা পাঠিয়ে দায় সারছে ইসি।

চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন অফিসার খোরশেদ আলম জানান, “আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে চট্টগ্রাম জেলার তিনটি উপজেলায় মিরসরাই,সীতাকুন্ড ও সন্দ্বীপের ৩০টি ইউনিয়নে ৩১ মার্চ এক যোগে ভোটগ্রহন অনুষ্টিত হচ্ছে।

চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উত্তর মুস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছেন, “৩০ইউনিয়নে নির্বিঘ্নে নির্বাচন সম্পন্ন করার জন্য পুলিশ, আনসার, র‌্যাব ও বিজিবির প্রায় ৩হাজার সদস্য মোতায়ন করা হয়েছে।”

তিন উপজেলায় মোট ৫১ জন সদস্য বিনা প্রতিদ্বন্ধীতায় নির্বাচিত হয়েছেন। ৩০ টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৮৩ জন, সংরক্ষিত ওয়ার্ড সদস্য মহিলা পদে ২০৮ জন ও সাধারন সদস্য পদে ৭৯৪ জন প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।

চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন অফিসার খোরশেদ আলম জানিয়েছেন, চেয়ারম্যান পদে ৮৩জন, সংরতি ওয়ার্ড সদস্য মহিলা পদে ২০৮ জন ও সাধারন সদস্য পদে ৭৯৪ জন ১০৩৪ জন প্রতিদ্বন্দ্বীতায় আছেন।

মিরসরাই উপজেলায় ৯টি ইউনিয়নে ৮১টি ভোটকেন্দ্র ৩৭১টি ভোট কক্ষে ১লাখ ১৫ হাজার ৭৩৮ জন ভোটার ভোট দিবেন। তাদের মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছে ৭৬ হাজার ৪৭৪ জন এবং মহিলা ভোটার রয়েছে ৭৫ হাজার ২৬৪জন ভোটার।

সীতাকুন্ড উপজেলায় ৯টি ইউনিয়নের ৮৮ টি ভোট কেন্দ্রে ৫০৭টি ভোট কক্ষে ২ লাখ ৪৭ হাজার ৭৪৩ জন ভোট দিবে। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৩২ হাজার ২৮৩ এবং মহিলা ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ১৫ হাজার ৪৬০ জন।

সন্দ্বীপ উপজেলার ১২ টি ইউনিয়নের ১১২টি ভোট কেন্দ্রে ৬১২টি ভোট কক্ষে ১ লাখ ৪৪ হাজার ৯০৬ জন ভোটার ভোট দিবেন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৭০ হাজার ৯৮২ জন এবং মহিলা ভোটার ৭৩ হাজার ৯২৪ জন।

তিনটি উপজেলার ৩০ টি ইউনিয়ের ২৮১টি ভোট কেন্দ্রে ৫ লাখ ৪৪ হাজার ৩৮৭ জন ভোটার ভোট দিবে ৩১ মার্চ বৃহস্পতিবার।

মিরসরাই,সীতাকুন্ড ও সন্দ্বীপে ৩টি উপজেলার ৩০টি ইউনিয়নে, সবগুলোতে আওয়ামীলীগ এবং বিএনপি মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীরা প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন, এছাড়াও স্বতন্ত্র ১৮ জন প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতায় আছেন।

আওয়ামীলীগ বিএনপির বাইরে জাতীয় পার্টি, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট এবং ইসলামী ফ্রন্ট বাংলাদেশের মোট ৫জন প্রার্থী ৩টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতায় আছেন।

মতামত